সর্বশেষ
মঙ্গলবার ৫ই অগ্রহায়ণ ১৪২৬ | ১৯ নভেম্বর ২০১৯

মানুষ আমাকে এখন জ্বালিয়ে মারবে: মিথিলা

মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ৪, ২০১৮

john-137987.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

জন কবির ও মিথিলার ছবি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়ার পর থেকে বিনোদন জগত থেকে শুরু সব জায়গায় চলছে আলোচনা। প্রবীণ অভিনেতা থেকে শুরু করে তাদের ফ্যানরাও নানা মন্তব্য করছেন ওই ছবিকে ঘিরে।

তবে বিষয়টি নিয়ে জন কবির একটু মজা করলেও মিথিলা বলছেন, এই ছবির কারণে মানুষ তাকে জ্বালিয়ে মারবে।

সোমবার (৩ ডিসেম্বর) জনের ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে শেয়ার করা ওই ছবি মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে পড়লে এ বিষয়টি নিয়ে হাস্যরস শুরু করেন শোবিজ তারকারাও। ফুয়াদ আল মুক্তাদির থেকে শুরু করে প্রবীণ অভিনেতা আবুল হায়াৎও সেখানে মন্তব্য করেন।

গতকাল রাতেই ফুয়াদ ওই ছবির কমেন্টে লেখেন, ভাবি। তখন তার রিপ্লেতে জন ফুয়াদকে ট্যাগ করে লেখেন, আমারও ভাবি। এরপর ফুয়াদের দেয়া একটি ইমোজিতে শেষ হয় তাদের ওই কথোপকথন।

অন্যদিকে আবুল হায়াত ওই ছবির কমেন্টে লেখেন, আর আমি দিলারা জামানের সঙ্গে ফটো দিলে দোষ। এই মন্তব্যের শেষে তিনি যুক্ত করেছেন একটি রাগের ইমো।

হাস্যরস শুধুমাত্র ছবি নিয়েই হচ্ছে না। ছবিটি এত দ্রুত ভাইরাল হওয়ার বিষয়টিও উঠে এসেছে কমেন্ট বক্সে। আর হবেই না কেন? এরইমধ্যে ছবিটি তিন হাজারেরও বেশি শেয়ার হয়েছে, কমেন্টে পড়েছে হাজারেরও বেশি।

এটি নিয়েই অনেকে বলছেন, জন নাকি এই কন্টেন্ট দিয়ে ভাইরাল হয়েছেন, সঙ্গে মিথিলাও।

বিষয়টি দৃষ্টিতে আসার পর মিথিলাও ওই ছবিতে গিয়ে কমেন্ট করেন। তিনি লেখেন, জনের বাচ্চা! মানুষ আমাকে এখন জ্বালিয়ে মারবে! কন্টেন্টের এমনিতেই অভাব নাই দুনিয়াতে! অন্তত আমার আমি’টার প্রমোশন কর একটু বেয়াদব!

আপাতদৃষ্টিতে মিথিলার ওই কমেন্টও ভাইরাল বনে গেছে। কারণ ১৫ ঘণ্টার ব্যবধানেই সেখানে ৩৩৯টি ইমো পড়েছে। অনেকে সেটির স্ক্রিনশট নিয়েও শেয়ার করছেন।

প্রসঙ্গত, তাহসান ও মিথিলার বিবাহবিচ্ছেদের পরও এই দুই তারকার দাম্পত্য জীবন নিয়ে মানুষের আগ্রহ একটু কমেনি। গেল বছর তাদের বিবাহবিচ্ছেদের পর সোশ্যাল মিডিয়া ‍জুড়ে আলোড়ন সৃষ্টি হয়েছিল। এর বিষয়টি নিয়ে আলোচনা-সমালোচনা বন্ধ থাকলেও এই ছবি সেই ঝড়ে নতুন করে বাতাস দিয়েছে। তাহসান ও মিথিলা ২০০৬ সালে ৩ আগস্ট বিবাহবন্ধনে আবদ্ধ হয়েছিলেন। এই দম্পতির একটি সন্তানও রয়েছে।


ঢাকা, মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ৪, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ৫৫৫৪ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন