সর্বশেষ
রবিবার ১০ই চৈত্র ১৪২৫ | ২৪ মার্চ ২০১৯

সমতায় সিরিজ

বুধবার, ডিসেম্বর ১২, ২০১৮

7.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

গতকাল মঙ্গলবার মিরপুর শেরেবাংলা স্টেডিয়ামে অনুষ্ঠিত ম্যাচে এই জয়ে সিরিজ ১-১ ব্যবধানে সমতা নিয়ে এসেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। এর আগে প্রথম ম্যাচে স্বাগতিক বাংলাদেশ পাঁচ উইকেটের সহজ জয় পেয়েছিল।

জিততে হলে ওয়েস্ট ইন্ডিজের চাই ২৫৬ রান। এই রান তাড়া করতে নেমে শুরুতেই চাপে পড়ে ক্যারিবীয়রা। দলীয় ৫ রানের মাথায় সাজঘরে ফেরেন ওপেনার চন্দ্রপল হেমরাজ। আরেক ওপেনার শেই হোপ একা হাতে শুরুর এই ধাক্কা শুধু সামলাননি, দালকে এনে দিয়েছেন দারুণ জয়। তার অসাধারণ সেঞ্চুরিতে বাংলাদেশের বিপক্ষে সিরিজের দ্বিতীয় ওয়ানডে ক্যারিবীয়রা জিতেছে চার উইকেটে।

এদিনের ম্যাচে বাংলাদেশের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের সামনে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ব্যাটসম্যানদের রান তুলতে যখন বেশ বেগ পেতে হচ্ছিল, তখন দেয়াল হয়ে দাঁড়িয়েছেন শেই হোপ। ১৪৪ বলে ১৪৬ রানের হার-না-মানা একটি ইনিংস খেলে দলকে জয়ের দুয়ারে পৌঁছে দেন তিনি।  যাতে ১২টি চার ও তিনটি ছক্কার মার রয়েছে।

পেসার মুস্তাফিজুর রাহমান ও রুবেল হোসেন দুটি করে উইকেট নিয়েও প্রতিপক্ষের জয়ের পথে বাধা হতে পারেননি। একটি করে উইকেট পান মাশরাফি বিন মুর্তজা ও মেহেদী হাসান মিরাজ। খবর স্পোর্টসজোন টুয়েন্টিফোর

এর আগে, টস হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে বাংলাদেশ গড়েছিল ২৫৫ রান। যদিও তাদের শুরুটা ভালো হয়নি। ইনিংসের দ্বিতীয় ওভারে পায়ে চোট পেয়ে মাঠ ছাড়েছিলেন লিটন দাস। পরে দলীয় ১৪ রানে ইমরুল কায়েস ছয় বল খেলে নিজের ঝুলিতে কোনো রান না নিয়েই সাজঘরে ফিরলে শুরুতেই ধাক্কা লাগে বাংলাদেশের ইনিংসে।

অবশ্য শুরুর এই ধাক্কা সামলান মুশফিকুর রহিম ও তামিম ইকবাল। তৃতীয় উইকেটে দুজনে ১১১ রানের জুটি গড়ে দলকে বড় সংগ্রহের পথ দেখান। পরে তামিম ৬৩ বলে ৫০ ও মুশফিক ৮০ বলে ৬২ রান করে আউট হন।

পরে মাহমুদউল্লাহ ও সাকিব আল হাসান পঞ্চম উইকেটে ৬১ রান করলে আশা দেখে বাংলাদেশ। কিন্তু মাহমুদউল্লাহ ৩০ রান করে করে সাজঘরে ফেরার পর সৌম্য সরকার (৬) নেমে বেশিক্ষণ থাকতে পারেননি। পরে চোটে আক্রান্ত লিটন দাস আবার নেমে ৮ রান করে আউট হন।

আর সাকিব ৬২ বলে ৬৫ রানের চমৎকার একটি ইনিংস খেললে দলের সংগ্রহটা বড় হয়।


ঢাকা, বুধবার, ডিসেম্বর ১২, ২০১৮ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ১৬০১৯ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন