সর্বশেষ
মঙ্গলবার ৫ই অগ্রহায়ণ ১৪২৬ | ১৯ নভেম্বর ২০১৯

আবারও কানাডার প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন জাস্টিন ট্রুডো

মঙ্গলবার, অক্টোবর ২২, ২০১৯

73116461_2446263585649574_217697856281116672_n.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

আবারও কানাডার প্রধানমন্ত্রী হচ্ছেন জাস্টিন ট্রুডো। সোমবার অনুষ্ঠিত হওয়া দেশটির ৪৩তম সাধারণ নির্বাচনে ট্রুডোর লিবারেল পার্টি সবচেয়ে বেশি আসন পাবে বলে জানিয়েছে সিবিসি। তবে নির্ধারিত ১৭২ আসন পেলে তাকে সংখ্যাগরিষ্ঠ সরকার গঠন করতে হবে।

হাতে ব্যালট গণনার কারণে ফল প্রকাশে কিছুটা সময় লাগতে পারে। তবে এরই মধ্যে নির্বাচনে বিজয়ী হিসেবে ট্রুডোর দলকেই এগিয়ে রেখেছে সকল আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম।

ভোটগ্রহণ পর্বের শুরুতেই পূর্বাঞ্চলীয় রাজ্যগুলোতে ট্রুডোর পিছিয়ে পড়ার আভাস স্পষ্ট হলেও দিনশেষে প্রতীয়মান হয় যে, পার্লামেন্টের অধিকাংশ আসনের নিয়ন্ত্রণ নিতে যাচ্ছে তার দল লিবারেল পার্টি অব কানাডা। তবে সংখ্যালঘু সরকার গঠিত হলে সুবিধা পাবে বামপন্থী রাজনৈতিক দল নিউ ডেমোক্র্যাটিক পার্টি (এনডিপি)। সেক্ষেত্রে কিংমেকারে পরিণত হবেন দলটির নেতা জগমিত সিং।

বিবিসি জানিয়েছে, ক্ষমতায় ফিরলেও একক সংখ্যাগরিষ্ঠতা নিশ্চিতে ব্যর্থ হলে পার্লামেন্টের ওপর নিয়ন্ত্রণ কমে যাবে ট্রুডো-র। সেক্ষেত্রে বিভিন্ন আইন পাস করতে অন্য দলগুলোর শরণাপন্ন হতে হবে তাকে।

পাঁচ সপ্তাহের নির্বাচনি প্রচারণা শেষে সোমবার হাউস অব কমন্সের ৩৩৮ আসনে ভোটগ্রহণ সম্পন্ন হয়। এককভাবে সরকার গঠনে প্রয়োজন ১৭২টি আসন।

১০টি প্রদেশ নিয়ে গঠিত কানাডা আয়তনের দিক থেকে বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম দেশ। প্রায় চার কোটি মানুষের দেশটিতে এবারের নির্বাচনে অংশ মোট ছয়টি রাজনৈতিক দল অংশ নিয়েছে। দলগুলো হচ্ছে লিবারেল, কনজারভেটিভ, নিউ ডেমোক্র্যাটিক, ব্লক কুবেকুয়া, গ্রিন ও পিপলস পার্টি অব কানাডা।

প্রয়াত প্রধানমন্ত্রী এবং লিবারেল পার্টির সাবেক নেতা পিয়েরে ট্যুডোর সন্তান জাস্টিন ট্রুডো। বাবার দেখানো পথেই এগিয়ে যাচ্ছেন তিনি।

 


ঢাকা, মঙ্গলবার, অক্টোবর ২২, ২০১৯ (বিডিলাইভ২৪) // কে এইচ এই লেখাটি ২৫৬ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন