সর্বশেষ
বৃহঃস্পতিবার ৭ই অগ্রহায়ণ ১৪২৬ | ২১ নভেম্বর ২০১৯

হামলার আর কোনো অজুহাত নেই তুরস্কের: সিরিয়া

সোমবার, অক্টোবর ২৮, ২০১৯

76720864_2274215739347490_1813441668905435136_n.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

উত্তর সিরিয়ার সীমান্ত থেকে কুর্দিদের সরানোর উদ্দেশ্যে সম্প্রতি হামলা শুরু করে তুরস্ক। কিন্তু রাশিয়ার সঙ্গে তুরস্কের চুক্তি অনুযায়ী কুর্দিরা নির্দিষ্ট অঞ্চল ছেড়ে দিয়েছে এরপর হামলা করার জন্য তুরস্কের হাতে আর কোনো অজুহাত নেই বলে জানিয়েছে সিরিয়া। সিরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় রবিবার এক বিবৃতিতে এ মন্তব্য করেছে।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সিরিয়ার সেনাবাহিনীর সহযোগিতায় কুর্দি গেরিলারা তুর্কি সীমান্ত থেকে ৩০ কিলোমিটার দূরে সরে গেছে। এর ফলে সিরিয়ার ভূখণ্ডে তুর্কি বাহিনীর আগ্রাসন চালানোর প্রধান অজুহাত সরিয়ে ফেলা হয়েছে।

তুরস্কের সেনাবাহিনী গত ৯ অক্টোবর থেকে ‘তুর্কি-সিরিয়া সীমান্ত থেকে কুর্দি গেরিলাদের মূলোৎপাটনের’ কথা বলে সিরিয়া সীমান্তে হামলা চালায়। অবশ্য ১৭ অক্টোবর থেকে পাঁচদিনের যুদ্ধবিরতিতে সম্মত হয় এরদোয়ান সরকার। যুদ্ধবিরতির ওই সময়সীমা শেষ হওয়ার আগেই তুর্কি ও রুশ প্রেসিডেন্টের মধ্যে এক সমঝোতা হয় যাতে বলা হয় কুর্দি গেরিলারা তুর্কি-সিরিয়া সীমান্ত থেকে সরে যাবে এবং বিনিময়ে তাদের বিরুদ্ধে অভিযান বন্ধ করবে আঙ্কারা।

সিরিয়ার পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের বিবৃতিতে বলা হয়েছে, সীমান্ত থেকে কুর্দি গেরিলারা সরে আসলে তাদেরকে স্বাগত জানানোর পাশাপাশি সব রকমের সহযোগিতা করবে দামেস্ক। কুর্দি জনগোষ্ঠীর সামনে একথা প্রমাণ করা হবে যে, তারা সিরিয়ার জনগণের অংশ এবং এই জনগণের সঙ্গে ঐক্যবদ্ধভাবে মিলেমিশে বসবাস করার অধিকার তাদের রয়েছে।

সিরিয়ায় আন্তর্জাতিক হামলার পর বাশার আল আসাদ সরকারের বিরোধীদের হয়ে যুদ্ধ করেছে কুর্দিরা।

 


ঢাকা, সোমবার, অক্টোবর ২৮, ২০১৯ (বিডিলাইভ২৪) // কে এইচ এই লেখাটি ৭১ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন