সর্বশেষ
বৃহঃস্পতিবার ২৮শে অগ্রহায়ণ ১৪২৬ | ১২ ডিসেম্বর ২০১৯

রান্না ঘরেই আছে ব্যথার ওষুধ

সোমবার, নভেম্বর ১১, ২০১৯

113.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

আমরা প্রতিটি মানুষই জীবনে কোনো না কোনো ব্যথায় আক্রান্ত হয়ে ব্যথানাশক ওষুধ খেয়ে থাকি। সাময়িকভাবে ব্যথানাশক ওষুধ তেমন ক্ষতিকর না হলেও দীর্ঘদিন ব্যথানাশক ওষুধ খাওয়া মারাত্মক ক্ষতিকর। অনেকে চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়াই দিনের পর দিন, বছরের পর বছর ব্যথানাশক ওষুধ খেয়ে চলেছে।

কিন্তু কখনো ভেবে দেখেছেন কি অতিরিক্ত ওষুধ গ্রহণ আপনার শরীরের জন্য কতোটা ক্ষতিকর। কিন্তু এখন আপনি চাইলেই ওষুধ গ্রহণ না করে ঘরোয়াভাবে এ সমস্যাটি সমাধান করতে পারেন।

জেনে নিন ওষুধ ছাড়াই কিভাবে ব্যথা কমানো সম্ভব-

পুদিনা পাতা :
পুদিনা পাতা হজম এবং পেটের সমস্যা দূর করে। পুদিনা পাতা পেশীর ব্যথা, দাঁতে ব্যথা, মাথা ব্যথা উপশমে সাহায্য করে। এছাড়া আপনার মন এবং স্মৃতিশক্তির ওপর একটি শীতল প্রভাব ফেলে।

আদা :
আদা নানা প্রকারের ব্যথা উপশমে খুবই কার্যকরী। পেটে ব্যথা, বুকে ব্যথা, মাসিকের সমস্যা এবং পেশীর ব্যথাও কমায় আদা। তাই আদা নানা প্রকার ব্যথার ওষুধ হিসেবে ব্যবহার করতে পারেন অনায়াসেই।

চেরি :
আমরা অনেকেই হয়তো জানি না যে লাল চেরি ব্যথা উপশমে খুব ভালো কাজ করে। চেরির মধ্যে রয়েছে অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট যৌগ যা শরীরের প্রদাহ এবং ব্যথা কমাতে সাহায্য করে।

হলুদ :
হলুদ প্রদাহবিরোধী ওষুধ হিসেবে কাজ করে। কাশি কমাতে হলে হলুদের টুকরো মুখে রেখে চুষতে পারেন। শরীরের গিরায় গিরায়, পেশীতে বা ফোলাভাব কমাতে হলুদ বেশ কার্যকরী। সর্দি-কাশি হলে হলুদ খেতে পারেন। হলুদে রয়েছে অ্যান্টিবায়োটিক ওষুধের গুণাগুণ। এছাড়া এক গ্লাস গরম দুধের মধ্যে হলুদের গুঁড়ো এবং গোলমরিচের গুঁড়ো মিশিয়ে পান করুন।

লাল আঙ্গুর :
এটা ব্যথা কমানোর ওষুধ হিসেবে অতি পরিচিত না হলেও, ব্যথা কমাতে লাল আঙ্গুরের জুড়ি নেই। পিঠে ব্যথা প্রতিরোধে লাল আঙ্গুর অতি উপকারী।

লবণ :
আপনার গোসলের পানিতে ১০-১৫ টেবিল চামচ লবণ যোগ করতে হবে। তারপর সে পানিতে ১৫ মিনিট শরীর ভিজিয়ে রাখতে হবে। এটি শরীরের পানি শূন্যতা রোধ করে প্রদাহ এবং ব্যথাও কমিয়ে দেয়।


ঢাকা, সোমবার, নভেম্বর ১১, ২০১৯ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ৪৯২ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন