সর্বশেষ
শনিবার ১১ই আষাঢ় ১৪২৯ | ২৫ জুন ২০২২

জাতিসংঘের আদালতে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে গাম্বিয়ার মামলা

রোহিঙ্গা গণহত্যা

সোমবার, নভেম্বর ১১, ২০১৯

3.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

২০১৭ সালে রাখাইনে রোহিঙ্গা জনগোষ্ঠীর ওপর গণহত্যা চালায় মিয়ানমারের সেনাবাহিনী। সেসময় জীবন বাঁচাতে সাত লক্ষাধিক রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়। ওই গণহত্যার কারণে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে জাতিসংঘের সর্বোচ্চ আদালতে (আইসিজে) মামলা করেছে ওআইসিভুক্ত দেশ গাম্বিয়া।

সোমবার নেদারল্যান্ডসের দি হেগের দি ইন্টারন্যাশনাল কোর্ট অব জাস্টিসে (আইসিজে) মিয়ানমারের বিরুদ্ধে মামলা করে দেশটি। যুক্তরাজ্যের দৈনিক গার্ডিয়ান জানিয়েছে, গাম্বিয়া তাদের ৪৬ পৃষ্ঠার অভিযোগে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে রাখাইন রাজ্যে বসবাসরত রোহিঙ্গা মুসলমানদের নির্বিচারে হত্যা, ধর্ষণ এবং তাদের আবাস ধ্বংসের কথা বলেছে।

২০১৭ সালের ২৫ অগাস্ট রাখাইনে সেনাবাহিনীর অভিযানে মুখে মিয়ানমার ছেড়ে প্রাণ বাঁচাতে বাংলাদেশ পালিয়ে আসে সাত লক্ষাধিক রোহিঙ্গা। তাদের কথায় উঠে আসে নির্বিচারে হত্যা, ধর্ষণ, জ্বালাও-পোড়াওয়ের ভয়াবহ বিবরণ, যাকে জাতিগত নির্মূল অভিযান বলে জাতিসংঘ।

গার্ডিয়ান জানিয়েছে, যদি আইসিজে মামলাটি বিচারের জন্য গ্রহণ করে, তবে এটাই হবে গণহত্যার নিজস্ব তদন্তে আইসিজের প্রথম উদ্যোগ। এর আগে তদন্তের ক্ষেত্রে তারা অন্য সংস্থার ওপর নির্ভর করত।

আইসিজের বিধি অনুসারে, জাতিসংঘের সদস্যভুক্ত এক দেশ অন্য দেশের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক আইন ভঙ্গের অভিযোগ তুলতে পারে।

১৯৯৩ সালে বসনিয়ায় গণহত্যার বিচারের শুরুতে আইসিজে সার্বিয়ার বিষয়ে অন্তর্বর্তী ব্যবস্থা নিয়েছিল।


ঢাকা, সোমবার, নভেম্বর ১১, ২০১৯ (বিডিলাইভ২৪) // কে এইচ এই লেখাটি ১৫৪৭ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন