সর্বশেষ
রবিবার ১লা পৌষ ১৪২৬ | ১৫ ডিসেম্বর ২০১৯

স্বাস্থ্যসম্মত ও নারীবান্ধব টয়লেটের দাবি মেহজাবিনের

সোমবার, নভেম্বর ১৮, ২০১৯

mehejabeen.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

অস্বাস্থ্যকর টয়লেট ব্যবহারে ইউটিআই রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা নারীদেরই বেশি থাকে, যা পরবর্তীতে ক্যান্সারে পরিণত হতে পারে। স্বাস্থ্যসম্মত ও নারীবান্ধব টয়লেটের অভাব থেকে সৃষ্ট ভয়াবহ রোগ ইউটিআই থেকে রক্ষা পেতে অভিনেত্রী মেহজাবিন দাবি জানিয়েছেন স্বাস্থ্যসম্মত টয়লেটের।

অন্যান্য পেশার নারীদের মতো অভিনয় জগতের নারীদেরও বেশকিছু চ্যালেঞ্জের মুখে পড়তে হয় নিয়মিত; যার মধ্যে অন্যতম একটি সমস্যা হলো স্বাস্থ্যসম্মত টয়লেটের অভাব। আর দীর্ঘক্ষণ টয়লেটে যেতে না পারার কারণে, তাদের কেউ কেউ আক্রান্ত হচ্ছেন ভয়াবহ ইউটিআই রোগে। এ নিয়ে সম্প্রতি মুখ খুলেছেন মেহজাবিন।

হারপিক-এর ডিজিটাল #HarpicAgainstUTI ক্যাম্পেইনের সঙ্গে একাত্মতা প্রকাশ করে মেহজাবিন বলেন, প্রতিদিন আমরা যে সমস্যার সম্মুখীন হই, তা হলো একটি স্বাস্থ্যসম্মত টয়লেটের অভাব। বাসার বাইরের নোংরা টয়লেট ব্যবহারে হতে পারে ইউটিআই বা ইউরিন ইনফেকশন। আসুন, আমরা সকলে ইউটিআই বিষয়ে সচেতন হই। সেইসঙ্গে স্বাস্থ্যসম্মত টয়লেটের দাবি জানান তিনি।

জানা গেছে, 'জীবাণুঘটিত রোগগুলোর মধ্যে ইউরিনারি ট্রাক্ট ইনফেকশন (ইউটিআই) অন্যতম। এই প্রদাহ থেকে ক্রনিক রেনাল ফেইলিওর বা ধীরগতিতে কিডনি অকেজো হতে পারে। যার শেষ পরিণতি হিসেবে হতে পারে মরণব্যাধি ক্যান্সার। এক গবেষণা জরিপে দেখা যায়, ঢাকা শহরে ৮০ শতাংশ নারী ঘর থেকে বের হওয়ার সময় পানি খান না। কারণ এই শহরে নারীদের জন্য পর্যাপ্ত টয়লেট না থাকায় পানি খেলে তাদের নানা বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। কিন্তু দুঃখজনক হলেও সত্য, রেলস্টেশন, বাস কাউন্টার, হাসপাতাল, স্কুল-কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়সহ অনেক ক্ষেত্রেই নারীবান্ধব টয়লেট খুব একটা দেখা যায় না।'

ইউটিআই (ইউরিনারি ট্র্যাক্ট ইনফেকশন), কিডনির সমস্যাসহ নানাবিধ স্বাস্থ্যগত ঝুঁকি। গড়ে প্রতি ১০ জন নারীর মধ্যে ৫ জন নারী ইউটিআই রোগে ভুগেন জানা গেছে। সারাদিন টয়লেট চেপে রাখায় তাদের ইউটিআই রোগে ভোগার আশঙ্কা বেড়ে যায়।


ঢাকা, সোমবার, নভেম্বর ১৮, ২০১৯ (বিডিলাইভ২৪) // রি সু এই লেখাটি ২৭৩ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন