সর্বশেষ
মঙ্গলবার ৩০শে আষাঢ় ১৪২৭ | ১৪ জুলাই ২০২০

আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে লড়বেন সু চি

রোহিঙ্গা গণহত্যার অভিযোগ

বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ২১, ২০১৯

suu_kyi.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

রোহিঙ্গা গণহত্যা ও মানবতাবিরোধী অপরাধে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে আন্তর্জাতিক বিচার আদালতে দায়ের হওয়া মামলায় পক্ষে আইনি লড়াই করবেন দেশটির স্টেট কাউন্সেলর অং সান সু চি। বুধবার মিয়ানমার সরকার এটি নিশ্চিত করেছে।

বার্তা সংস্থা রয়টার্সের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে, গত ১১ নভেম্বর জাতিসংঘের এ সর্বোচ্চ আদালতে রোহিঙ্গা গণহত্যার অভিযোগে মিয়ানমারের বিরুদ্ধে মামলা করে আফ্রিকার ছোটো দেশ গাম্বিয়া। রোহিঙ্গাদের ওপর বর্বরতার প্রায় আড়াই বছর পর অর্গানাইজেশন ফর ইসলামিক কোঅপারেশনের (ওআইসি) সমর্থনে দেশটি মামলা করেছে। আগামী ১০ থেকে ১২ ডিসেম্বরের মধ্যে আন্তর্জাতিক আদালতে এ মামলার শুনানি শুরু হবে। এর প্রেক্ষিতেই মিয়ানমার এ মামলা লড়ার ঘোষণা দিয়েছে। সু চির কার্যালয় এক ফেসবুক পোস্টে জানিয়েছে, গাম্বিয়ার দায়ের করা মামলা লড়তে খ্যাতিমান আইনজীবী নিয়োগ দিয়েছে মিয়ানমার সরকার।

মিয়ানমারের স্টেট কাউন্সেলর ও পররাষ্ট্র বিষয়ক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী হওয়ার সুবাদে জাতীয় স্বার্থ রক্ষায় সু চি নিজেই নেদারল্যান্ডসের দ্য হেগের আদালতে আইনজীবী টিমের নেতৃত্ব দেবেন। সেনাবাহিনীর সঙ্গে আলোচনার পর মিয়ানমার সরকার এ সিদ্ধান্ত নিয়েছে। সেনাবাহিনীর এক মুখপাত্র জানিয়েছেন, সরকারের প্রতি সেনাবাহিনীর সমর্থন ও সহযোগিতা অব্যাহত থাকবে। একইসঙ্গে সেনাবাহিনী সরকারের নির্দেশনা মেনে চলবে।

২০১৭ সালের আগস্টে মিয়ানমারে রাখাইন রাজ্যে রোহিঙ্গাদের বিরুদ্ধে অভিযানে নামে দেশটির সেনাবাহিনী। নির্বিচার হত্যা, ধর্ষণ, নির্যাতন থেকে বাঁচতে পরের কয়েক মাসে অন্তত সাত লাখ রোহিঙ্গা বাংলাদেশে আশ্রয় নেয়।


ঢাকা, বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ২১, ২০১৯ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ২৫২ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন