সর্বশেষ
সোমবার ২০শে আষাঢ় ১৪২৯ | ০৪ জুলাই ২০২২

ধোনির বিরুদ্ধে প্রতারণার মামলা

বুধবার, ডিসেম্বর ৪, ২০১৯

78326926_620408165434283_1768351302640730112_n.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

বেশকিছুদিন থেকে ক্রিকেটের বাইরে রয়েছেন ভারতের সর্বকালের সেরা অধিনায়ক মহেন্দ্র সিং ধোনি। তার অবসর নিয়ে একেরপর এক খবর প্রকাশ হচ্ছে। এরই মধ্যে নতুন কারণে আলোচনায় এলেন তিনি। ধোনির বিরুদ্ধে সম্প্রতি দায়ের হয়েছে প্রতারণার মামলা।

আম্রপালি গ্রুপের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর ধোনি। বিক্রি করা ফ্ল্যাট হাতে তুলে দিতে না পারায় প্রতিষ্ঠানটির নামে মামলা ঠুকে দিয়েছে ক্রেতারা। প্রতিষ্ঠানটির ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর হওয়ায় দিল্লী পুলিশের আর্থিক জোচ্চুরি শাখাতে একইসঙ্গে মামলা হয়েছে ভারতের সাবেক অধিনায়ক ধোনির নামেও।

জানা গেছে, ফ্ল্যাট বরাদ্দের নামে ক্রেতাদের কাছ থেকে ২ হাজার ৬ শত ৪৭ কোটি রুপি হাতিয়ে নেয়ার অভিযোগ উঠেছে আম্রপালি গ্রুপের নামে। গত ২৩ জুলাই ভারতের সুপ্রিম কোর্ট থেকে জানানো হয় যে, ফ্ল্যাট বুঝিয়ে না দিয়ে একাধিক প্রতিষ্ঠানের মাঝে অর্থ বণ্টন করে দিয়েছে আম্রপালি গ্রুপ।

এদিকে যেসব প্রতিষ্ঠানে অর্থ বণ্টন করার অভিযোগ আছে, তার মধ্যে কয়েকটি প্রতিষ্ঠান আবার ধোনির স্ত্রী সাক্ষী ধোনির নামে নিবন্ধনকৃত। দায়ের করা মামলায় বলা হয়েছে আম্রপালি গ্রুপের সঙ্গে বড় রকমের আর্থিক জোচ্চুরিতে জড়িত ধোনি নিজেও।

মামলার এজাহারে লিখিত আছে, ধোনির ভাবমূর্তি ও আইআইটি থেকে স্নাতক সম্পন্ন করা স্থপতি অনিল কে শর্মার স্বাক্ষরিত চুক্তিনামা দেখেই উৎসাহী হয়েছিল ক্রেতারা। অনিল শর্মা অবশ্যই প্রতারণার সঙ্গে জড়িত তবে আমরা চাই ধোনির নামেও যেন তদন্ত করা হয়।

মামলায় আরও বলা হয়েছে, আম্রপালি গ্রুপের হয়ে বেশ আগ্রাসীভাবে পণ্যের বিজ্ঞাপন করেছেন ধোনি। ভারতের জনপ্রিয় ক্রিকেটারের বিজ্ঞাপনের ফলে ধোকায় পড়েছে সাধারণ জনগণ। বলা হয়েছে ধোনি ও প্রখ্যাত স্থপতি অনিল শর্মার নামে উৎসাহী হয়ে ফ্ল্যাটের পেছনে অর্থ ঢেলেছে ক্রেতারা।


ঢাকা, বুধবার, ডিসেম্বর ৪, ২০১৯ (বিডিলাইভ২৪) // কে এইচ এই লেখাটি ১৬১২ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন