সর্বশেষ
শুক্রবার ১০ই আশ্বিন ১৪২৭ | ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০

কেরানীগঞ্জ প্লাস্টিক কারখানায় আগুন, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৮

বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১২, ২০১৯

keranigonj.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

কেরানীগঞ্জ উপজেলার চুনকুটিয়া এলাকায় অবস্থিত ‘প্রাইম পেট অ্যান্ড প্লাস্টিক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড’র কারখানার অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় এখন পর্যন্ত আট শ্রমিকের মৃত্যু হয়েছে।

ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের (ঢামেক) বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় বৃহস্পতিবার (১২ ডিসেম্বর) ভোর থেকে সকাল পর্যন্ত তাদের মৃত্যু হয়। নিহতদের মধ্যে ইমরান, বাবুল, রায়হান, খালেক ও সালাউদ্দিনের নাম জানা গেছে।

ঢামেক বার্ন ইউনিটের আবাসিক সার্জন (আরএস) ডা. আরিফুল ইসলাম নবীন গণমাধ্যমকে জানান, বুধবার রাত থেকে বৃহস্পতিবার সকাল পর্যন্ত অগ্নিদগ্ধদের মধ্যে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সাত জনের মৃত্যু হয়েছে।

এর আগে বুধবার বিকেল সোয়া ৪টার দিকে কেরানীগঞ্জের চুনকুটিয়া এলাকার ‘প্রাইম পেট অ্যান্ড প্লাস্টিক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড’র কারখানায় আগুন লাগে। ঘটনার সময় শ্রমিকরা কাজ করছিলেন। তখন হঠাৎই গ্যাস রুম থেকে আগুনের সূত্রপাত হয়।

ইঞ্জিনিয়ার এসে শ্রমিকদের আগুন লাগার খবর দেয়। এরপর শ্রমিকরা পানি ও কারখানায় থাকা অগ্নিনির্বাপণ যন্ত্র দিয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা করলে তখনই তারা দগ্ধ হয়।

‘প্রাইম পেট অ্যান্ড প্লাস্টিক ইন্ডাস্ট্রিজ লিমিটেড’র কারখানার গত দুই বছরে তিনবার অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে, যার দুটোই ঘটেছে চলতি বছরে। প্রতিটি অগ্নিকাণ্ড ছিল ভয়াবহ।

২০১৬ সালের ২৮ নভেম্বর কারখানাটিতে প্রথম অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এরপর চলতি বছরের ২৫ এপ্রিল দ্বিতীয়বারের মতো আগুন লাগে। তবে ওই দু’টি অগ্নিকাণ্ডে কারখানার ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি হলেও কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।

সর্বশেষ বুধবার (১১ ডিসেম্বর) তৃতীয়বারের মতো আগুন লাগে কারখানাটিতে। বিকাল সোয়া ৪টায় কেরানীগঞ্জের চুনকুটিয়া হিজলতলায় প্রাইম পেট অ্যান্ড প্লাস্টিক ইন্ড্রাস্ট্রিস লি. এর কারখানার ভিতর গ্যাস সিলিন্ডার থেকে আগুনের সূত্রপাত ঘটে বলে এলাকাবাসীর ধারনা। কারখানাটিতে ওয়ান টাইম খাবার প্লেট, গ্লাসসহ বিভিন্ন আইটেম তৈরি হতো। আশপাশের মানুষ কিছু বুঝে ওঠার আগেই আগুন ছড়িয়ে পড়ে।


ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১২, ২০১৯ (বিডিলাইভ২৪) // রি সু এই লেখাটি ৪৯০ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন