সর্বশেষ
মঙ্গলবার ১৪ই আশ্বিন ১৪২৭ | ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০

সুগন্ধি বেশী সময় স্থায়ী করতে যা করবেন

বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১৯, ২০১৯

g.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

স্নিগ্ধ সকাল, তপ্ত দুপুর, এমনকি বৃষ্টি বিকেলেও সুগন্ধির ব্যবহার অপরিহার্য। দিন-রাতের কর্মব্যস্ততা আর ছোটাছুটিতে নিজেকে সতেজ রাখতে সুগন্ধির জুড়ি নেই। শীতের সময় শুকনো ও আর্দ্রতাশুন্য ত্বকে পারফিউমের সুগন্ধ বেশিক্ষণ স্থায়ী হয় না। এজন্য কড়া কোনো সুগন্ধি ব্যবহার করাটাই ভালো।

দীর্ঘস্থায়ী সুগন্ধি পেতে কিছু কৌশল জেনে নিন :
শরীরের নির্দিষ্ট কিছু জায়গায় সুগন্ধি ব্যবহার করলে সুগন্ধ দীর্ঘস্থায়ী হয়। শরীরের পালস পয়েন্টগুলো পারফিউম দেয়ার আদর্শ জায়গা। কবজি, কনুইয়ের ভাঁজের অংশ, কলার বোন, বাহুমূলে, হাঁটুর পেছনে, পায়ের গোড়ালি, নাভির কাছে, কানের পেছনে পারফিউম লাগালে সেই গন্ধটা স্থায়ী হয় বেশ কিছু সময়

পারফিউম ব্যবহারের পর ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিলে সুগন্ধ থাকবে বেশিক্ষণ। ত্বকের যে অংশে পারফিউম বা সুগন্ধি লাগিয়েছেন তার ওপর নন-সেন্টেড ময়েশ্চারাইজার লাগিয়ে নিন

চুলে সরাসরি পারফিউম স্প্রে করবেন না। এতে চুল রুক্ষ হয়ে যেতে পারে। প্রয়োজনে হেয়ার ব্রাশে পারফিউম স্প্রে করে নিন। সেই ব্রাশ দিয়ে চুল আচড়ে নিন।

এতে ত্বকের ভেতর পর্যন্ত শোষণ হয়ে সুগন্ধ দীর্ঘস্থায়ী হবে। বিশেষ করে শুষ্ক ত্বকে সুগন্ধি তুলনামূলক কম দীর্ঘস্থায়ী হয়। সে ক্ষেত্রে এই পদ্ধতিতে উপকার পাবেন। সাধারণত ব্যবহারের সময় পারফিউমের বোতল শরীর ৩ থেকে ৫ ইঞ্চি দূরে রেখে স্প্রে করুন। আর বডি স্প্রের ক্ষেত্রে এই দূরত্ব হবে এক ফুট।

যেমন হবে সুগন্ধি :
ছেলেদের জন্য একটু কড়া ধরনের সুগন্ধি মানানসই। জোর্জিও, আরমানি, কেলভিন ক্লেইন, বস, ডানহিল, ফেরারি, ডেভিডাভ, বুলগেরি, ডানহিল, জিরোজিরো সেভেন, জোভান ম্যাক্স, ক্রিশ্চিয়ান ডিওর।

মেয়েদের জন্য আছে গুচি, ভার্সাচি, হুগো বস, এসকাডা, ক্রিড, বারবেরির মতো জনপ্রিয় ব্র্যান্ড। ফুলের সুগন্ধ পছন্দ করলে ফ্লোরাল কালেকশন থেকে সুগন্ধি বেছে নিন। ছেলে ও মেয়েদের জন্য আলাদা করে ফ্লোরাল পারফিউম তৈরি করে বিখ্যাত ব্র্যান্ডগুলো। চাইলে পাবেন আপেল, পিচ, চেরি, আভোকেডা, কমলা, লেবুর মতো ফলের সুগন্ধি।

ছেলে-মেয়ে উভয়ের জন্য আলাদা করে রয়েছে চকোলেট, ক্যান্ডি ও স্পাইসি উড গন্ধযুক্ত সুগন্ধি। ছেলেদের কথা মাথায় রেখে স্পাইসি উড ফ্লেভার বাজারে আনা হলেও মেয়েদের জন্য রয়েছে উড বা কাঠের গন্ধযুক্ত সুগন্ধির সংগ্রহ। কড়া সুগন্ধি পছন্দ করলে কাঠের সুবাসযুক্ত ঝাঁজালো এই সুগন্ধি বেছে নিতে পারেন। দেশে তৈরি পারফিউম এসএইচ৬৯ দেখতে পারেন। যার পরিবেশক ওমেন্স ওয়ার্ল্ড কসমেটিকস।

আবহাওয়া ও উপলক্ষ :
সুগন্ধি ব্যবহারের সময় নিয়ে ডিভাইন বিউটি লাউঞ্জ এর সঙ্গীতা খান বলেন, ‘দিনে-রাতের সুগন্ধি আলাদা। অফিস আর উত্সবের সুগন্ধিও কিন্তু এক হবে না। একইভাবে গরম আর ঠাণ্ডার সময়ের সুগন্ধির উপাদান ও সৌরভে ভিন্নতা থাকবে।

বিশেষ কোনো উপলক্ষ না থাকলে সকালে হালকা সৌরভ আর সন্ধ্যার পরে অপেক্ষাকৃত গাঢ় সৌরভের বেছে নিন। ফুল, ফল, উড, স্পাইসি ও ফ্রেশ—সব ফ্লেভারের সুগন্ধিতেই হালকা ও কড়া দুই রকমের গন্ধযুক্ত সুগন্ধি পাবেন। ফুলপ্রেমীরা সকালে জেসমিন বা রোজ আর বিকেলে ল্যাভেন্ডার বা ক্যামোমিল নিতে পারেন। গরমের জন্য উপযুক্ত হালকা ও দীর্ঘস্থায়ী সুগন্ধি। ফ্রেশ ফ্রুটি, আইস কুল, ল্যাভেন্ডার, গোলাপ সুগন্ধি ব্যবহার করা যেতে পারে। স্পাইসি ও উড কালেকশন বেছে নিতে পারেন বৃষ্টির সময়টাতে। কিছু কিছু পারফিউম নির্দিষ্টভাবে ব্যবহার করা হয় রাত ও দিনের জন্য।

টিপস :
* সুগন্ধি বাছাইয়ের সহজ সূত্র হলো, পোশাক অনুযায়ী সুগন্ধি ব্যবহার করুন। হালকা পোশাকে স্নিগ্ধ ঘ্রান। আর জমকালো পোশাকে একটু কড়া ঘ্রাণ ব্যবহার করতে পারেন।

* গোসলের সময় লোমকূপ খুলে যায়। এ কারণে গোসলের পরপরই পারফিউম ব্যবহার করা হলে লোমকূপ সুগন্ধ অনেকাংশেই টেনে নেয়। সুগন্ধি এ কারণে অনেকক্ষণ ধরে থেকে যায়।
* ত্বক থেকে চুলে সুগন্ধির ঘ্রাণ বেশিক্ষণ স্থায়ী হয়। ভালো ফল পেতে চিরুনিতে সুগন্ধি স্প্রে করে পুরো চুল একবার আচড়ে নিন।
* যেকোনো গয়না পরার আগে সুগন্ধি ব্যবহার করুন। অন্যথায় গয়নার রঙ নষ্ট হওয়ার আশঙ্কা থাকবে।
* মুখ খোলার পর দীর্ঘদিন ব্যবহার না করে রেখে দিলে পারফিউমের কার্যকারিতা কমে যেতে থাকে।
* শুষ্ক এবং ঠান্ডা জায়গায় সুগন্ধি সংরক্ষণ করুন। এবং অবশ্যই সরাসরি সূর্যালোক থেকে দূরে রাখুন।

সুগন্ধির প্রকারভেদ :
বডি স্প্রে, বডি মিস্ট ও পারফিউম—এই তিন ধরনের সুগন্ধি পাবেন বাজারে। বডি স্প্রের স্থায়িত্ব খুব অল্প সময়। আট থেকে ১২ ঘণ্টার উল্লেখ থাকলেও ঘাম বা গরমে এর স্থায়িত্ব কয়েক ঘণ্টার বেশি হয় না।


বডি মিস্টের সুগন্ধ স্থায়িত্বের দিক থেকে বডি স্প্রের তুলনায় ৩ থেকে ৪ গুণ বেশি হয়। আর দামও পারফিউমের চেয়ে তুলনামূলক কম। ধরনভেদে এদের ব্যবহারও আলাদা। বডি স্প্রে সরাসরি শরীরে স্প্রে করতে হয়, কাপড়ে নয়। বডি মিস্ট লোশনের মতো হাতের তালুতে নিয়ে গায়ে মাখতে হয়।

পারফিউমকে বনেদিয়ানার প্রতীক বলা হয় এর দীর্ঘস্থায়ী সুগন্ধের জন্য। সাধারণত ধুয়ে ফেলার আগ পর্যন্ত এটি সুগন্ধ ছড়াতে থাকে।পারফিউম আবার দুই ধরনের আছে। একটা গায়ে ও অন্যটি কাপড়ে স্প্রে করলে সুগন্ধ দীর্ঘস্থায়ী হয়।


ঢাকা, বৃহস্পতিবার, ডিসেম্বর ১৯, ২০১৯ (বিডিলাইভ২৪) // জে এস এই লেখাটি ৪৮০ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন