সর্বশেষ
বৃহঃস্পতিবার ২৬শে চৈত্র ১৪২৬ | ০৯ এপ্রিল ২০২০

রান উৎসবের ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারাল আয়ারল্যান্ড

বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ১৬, ২০২০

odi-ireland-v-west-indies---balbirnie-batting.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

তিন ম্যাচ টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথমটিতে মুখোমুখি হয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ ও আয়ারল্যান্ড। শক্তির বিচারে দু'দলের মধ্যে আকাশ-পাতাল তফাৎ হলেও মাঠের খেলায় সেটি বুঝতে দেয়নি আয়ারল্যান্ড। স্টার্লিংরা প্রমাণ করলেন আয়ারল্যান্ডের ক্রিকেট হারিয়ে যায়নি। গ্রানাডায় রান উৎসবের শুরুটা করেছিল আয়ারল্যান্ড। শেষটা ওয়েস্ট ইন্ডিজ করলেও জয়ের বন্দরে পৌঁছা আর সম্ভব হয়নি।

প্রথম টি-টোয়েন্টিতে ৪ রানে উইকেটে জিতে তিন ম্যাচের সিরিজে এগিয়ে গেছে আয়ারল্যান্ড। ২০৯ রানের লক্ষ্য তাড়ায় ২০৪ রানে থামে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সেন্ট জর্জেসের ন্যাশনাল ক্রিকেট স্টেডিয়ামে বুধবার টস জিতে রেকর্ড গড়া জুটিতে দারুণ শুরু পায় আয়ারল্যান্ড। দুই ওপেনারের ১৫৬ রানের জুটিতে আগ্রাসী ছিলেন স্টার্লিং, তাকে যোগ্য সঙ্গ দেন ও’ব্রায়েন।

এই ম্যাচ দিয়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলে ফেরা অলরাউন্ডার ডোয়াইন ব্রাভো ভাঙেন ১২.৩ ওভার স্থায়ী জুটি। টি-টোয়েন্টিতে আইরিশদের যে কোনো জুটিতে স্টার্লিং-ও’ব্রায়েনের ১৫৬ রান সেরা। উদ্বোধনী জুটিতে এই সংস্করণে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে যে কোনো দেশের সেরা। ৩২ বলে ৪৮ রান করে ও’ব্রায়েনের বিদায়ের পরপরই থেমে যান স্টার্লিং। চতুর্থ ব্যাটসম্যান হিসেবে টি-টোয়েন্টিতে সর্বোচ্চ দুইবার নব্বইয়ের ঘরে আউট হওয়া এই ডানহাতি ওপেনার করেন ৯৫। ৪৭ বলে খেলা তার ক্যারিয়ার সেরা ইনিংসটি গড়া আট ছক্কা ও ছয় চারে।

সাজানো মঞ্চে ঝড় তুলতে পারেননি পরের ব্যাটসম্যানরা। অনেক বড় সংগ্রহের সম্ভাবনা জাগিয়েও শেষ পর্যন্ত কোনোমতে দুইশ পার হয় সফরকারীদের সংগ্রহ। রান তাড়ায় সিমন্সের বিদায়ে ভাঙে ৩৭ রানের উদ্বোধনী জুটি। পঞ্চাশ ছুঁয়ে থামেন লুইস। ২৯ বলে খেলা তার ৫৩ রানের বিস্ফোরক ইনিংস গড়া তিন ছক্কা ও ছয় চারে।

তিন ছক্কায় ১৮ বলে ২৮ রান করেন শিমরন হেটমায়ার। পোলার্ডের ব্যাট থেকে তিন ছক্কা ও এক চারে ১৫ বলে আসে ৩১ রান। সেই তুলনায় শান্তই ছিলেন নিকোলাস পুরান, ২৩ বলে করেন ২৬। জয়ের পথেই ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। শেষ দুই ওভারে প্রয়োজন ছিল ১৬ রান, হাতে ছিল ৬ উইকেট। দারুণ এক ওভারে ৩ রান দিয়ে পুরানকে বিদায় করে কাজটা কঠিন করে তোলেন ক্রেইগ ইয়ং। তিন ছক্কায় ২৬ রান করা রাদারফোর্ড ২০তম ওভারের প্রথম বলে ফিরেন সীমানায় ক্যাচ দিয়ে। আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফেরার ম্যাচে নায়ক হওয়ার হাতছানি ছিল ব্রাভোর সামনে, পারেননি তিনি।

ছক্কার পর দুই নিয়ে সমীকরণ নামিয়ে আনেন ৩ বলে ৫ রানে। এরপর আর কোনো রানই করতে পারেনি স্বাগতিকরা! ডট বল খেলে পরের বলে ক্যাচ দেন ব্রাভো। শেষ বলে ব্যাটই ছোঁয়াতে পারেননি ওয়ালশ। দারুণ পারফরম্যান্সে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে দ্বিতীয় জয়ের খুশিতে মাঠ ছাড়ে আয়ারল্যান্ড। আগামী শনিবার হবে দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টি।


ঢাকা, বৃহস্পতিবার, জানুয়ারী ১৬, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // এ এম এই লেখাটি ২৫৪ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন