সর্বশেষ
বুধবার ১৩ই কার্তিক ১৪২৭ | ২৮ অক্টোবর ২০২০

ব্রিটেনে করোনায় আক্রান্ত ৬৬ লাখ

বৃহস্পতিবার, মার্চ ২৬, ২০২০

ak.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

করোনার রোগী চিহ্নিত করার জন্য ‘কোভিড সিম্পটম ট্র্যাকার’ নামের একটি অ্যাপ তৈরি করেছেন লন্ডনের কিংস কলেজের বিজ্ঞানীরা। যুক্তরাজ্যে করোনাভাইরাস সংক্রমিত মানুষের সংখ্যা জানতে কোভিড সিম্পটম ট্র্যাকার নামের এই অ্যাপ চালুর মাত্র ২৪ ঘণ্টার মধ্যে অন্তত ৬ লাখ ৫০ হাজার মানুষ সেটি ডাউনলোড করেছেন।

এক সপ্তাহ পর এই অ্যাপ কর্তৃপক্ষ বলছে, তাদের অ্যাপে করোনার লক্ষণ সম্পর্কে বিস্তারিত জানিয়ে ব্যবহারকারীদের কাছে কিছু প্রশ্নের উত্তর জানতে চেয়েছিল। ব্যবহারকারীদের দেয়া তথ্য বলছে, দেশটিতে ইতোমধ্যে ৬৬ লাখের বেশি মানুষ করোনায় সংক্রমিত হয়েছেন।

কোভিড সিম্পটম ট্র্যাকার অ্যাপটি চলতি সপ্তাহেই চালু করা হয়েছে। এটি প্লে স্টোরে দেয়ার মাত্র ২৪ ঘণ্টায় ডাউনলোড করা হয়েছে ৬৫ লক্ষবার। আর সেই থেকে এই অ্যাপটি যারা ব্যবহার করছেন তাদের মধ্যে ১০ শতাংশ মানুষেরই করোনার লক্ষণ রয়েছে। তাদের মধ্যে জ্বর, কাশি ও ক্লান্তি রয়েছে। যুক্তরাজ্যের স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ হাসপাতালে না থাকলে কাউকে এই ভাইরাসের পরীক্ষা করছে না। তাই বলা যায় কতো মানুষ অসুস্থ তার স্পষ্ট চিত্রগুলোর মধ্যে একটি হতে পারে এই অ্যাপের তথ্য।

ব্রিটেনের ৬ কোটি ৬০ লাখ মানুষের প্রত্যেক ১০ জনের মধ্যে যদি একজনও সংক্রমিত হন; তাহলে মোট সংক্রমিত মানুষের সংখ্যা ৬৬ লাখ কিংবা তারও বেশি হয়। কিন্তু তা গোপন করা হচ্ছে। কোভিড সিম্পটম ট্র্যাকারের এই তথ্য প্রকাশের পর দেশটিতে গণহারে করোনা পরীক্ষা না করায় ব্রিটেনের ন্যাশনাল হেলথ সার্ভিসকে নিয়ে ব্যাপক বিতর্ক শুরু হয়েছে।

বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা জানিয়েছে, এই ভাইরাসটিকে রুখতে টেস্টের বা রোগী চিহ্নিত করার ওপর জোর দিতে হবে। করোনা মোকাবেলায় করোনার পরীক্ষা করার জরুরি। করোনা নিয়ন্ত্রণে টেস্ট করে আক্রান্তের খোঁজ জানা অতি জরুরি। কারণ এই রোগটি মানুষ থেকে মানুষের মধ্যে সহজে ছড়িয়ে পড়ে। দক্ষিণ কোরিয়া ও চীন টেস্টিং সিস্টেমের জন্য প্রশংসিত হয়েছে।

করোনা টেস্টিং কিটের কিছুটা ঘাটতি রয়েছে যুক্তরাজ্যেও। তবে দেশটির প্রধানমন্ত্রী বরিস জনসন ও তার বৈজ্ঞানিক পরামর্শদাতারা জানিয়েছেন, সঠিকভাবে করোনা টেস্ট করার জন্য কঠোর হচ্ছেন তারা।

অ্যাপ ডেভেলপার প্রফেসর টিম স্পেক্টর টিলিগ্রাফকে জানিয়েছেন, প্রথম বিশ্লেষণে দেখা গেছে যে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছেই। দেখা গেছে প্রতি ১০ জনে একজন ব্যবহারকারীর করোনা লক্ষণ রয়েছে। তিনি বিশ্বাস করেন যে, যারা এই অ্যাপ ব্যবহার করছেন তাদের মধ্যে ৬৫ হাজার মানুষের শরীরেই করোনা রয়েছে।


ঢাকা, বৃহস্পতিবার, মার্চ ২৬, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // রি সু এই লেখাটি ২০২২ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন