সর্বশেষ
শনিবার ২৮শে চৈত্র ১৪২৬ | ১১ এপ্রিল ২০২০

চাঁপাইনবাবগঞ্জে হোম কোয়ারান্টাইনে ৮৯০

বৃহস্পতিবার, মার্চ ২৬, ২০২০

chaa.JPG
চাঁপাইনবাবগঞ্জ প্রতিনিধি :

করোনা (কোভিড-১৯)সতর্কতায় চাঁপাইনবাবগঞ্জে বৃহস্পতিবার (২৬মার্চ) হোম কোয়রান্টাইনে ছিলেন ৮৯০ জন। এই সংখ্যা এ যাবৎকালের মধ্যে সর্বাধিক। গত বুধবার (২৫মার্চ) এ সংখ্যা ছিল ৮৫৮ জন। একদিনের ব্যবধানে কোয়রান্টাইনে থাকার সংখ্যা বেড়েছে ৩২ জন। তবে এদিন ১৪ দিন সম্পন্ন হওয়ায় কোয়ারান্টাইন থেকে বেরিয়ে গেছেন ২শ’ জন। গত বুধবার এ সংখ্যা ছিল ১৫০ জন।

বৃহস্পতিবার পর্যন্ত চাঁপাইনবাবগঞ্জে কোন করোনা আক্রান্ত বা মৃত্যুবরণকারী রোগী পাওয়া যায়নি। এদিন পর্যন্ত প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারান্টাইন বা আইসোলেশনেও কাউকে রাখতে হয়নি। চাঁপাইনবাবগঞ্জে গত ১ মার্চ থেকে ১৮ মার্চ পর্যন্ত বিদেশ ফেরত ব্যাক্তির সংখ্যা ১ হাজার ৫৬২ জন। যাদের ৮৯০ জনকে সনাক্ত করা হয়েছে। এর মধ্যে বৃহস্পতিবার সনাক্ত হয়েছেন ৩২ জন।

বৃহস্পতিবার রাতে জেলা প্রশাসকের কার্যালয় প্রস্তুতকৃত ও জেলা প্রশাসক এজেডএম নূরুল হক স্বাক্ষরিত কোভিড-১৯ সংক্রান্ত দৈনিক প্রতিবেদনে এসব তথ্য উল্লেখ করা হয়েছে।

প্রতিবেদনে আরও উল্লেখ করা হয়, জেলার ৫টি সরকারী হাসপাতালে ৩শ’ বেড রয়েছে। এর মধ্যে কোভিড-১৯ চিকিৎসার জন্য ৩০টি বেড প্রস্তুত রয়েছে। আইসোলেশন বেড রয়েছে ৫টি। তিনি জানান, জেলায় ৭০ জন সরকারী চিকিৎসক ও ২৫০জন নার্স কর্তব্যরত রয়েছেন। এছাড়া জেলায় এ পর্যন্ত প্রাপ্ত ৩শ’ সেট পারসোনাল প্রটেকশন ইকুইপমেন্ট(পিপিই) এর মধ্যে ২৫০ সেট বিতরণ করা হয়েছে। প্রস্তুত রয়েছে ৬টি আ্যম্বুলেন্স।

এছাড়া প্রতিবেদনে আরও উল্লেখ করা হয়,কোভিড-১৯ পরিস্থিতি মোকাবিলায় জেলার ৫ উপজেলা ও ৪ পৌরসভায় বিতরণের জন্য ১২৩ টন চাল ও নগদ ৫ লক্ষ ৪০ হাজার টাকা বরাদ্দ করা হয়েছে। মজুদ রয়েছে আরও ১২৫ টন চাল ও ৫ লক্ষ ৩৫ হাজার টাকা।

চাঁপাইনবাবগঞ্জে বিদেশ ফেরৎদের মধ্যে বৃহস্পতিবার পর্যন্ত সনাক্ত হন নি ৬৭২ জন। তবে পাসপোর্টে চাঁপাইনবাবগঞ্জের ঠিকানা উল্লেখ থাকলেও অনেকেই অন্য জেলায় বসবাস করেন বা দেশে ফিরলেও অনেকে চাঁপাইনবাবগঞ্জে আসেন নি বলে পূর্বেই জানিয়েছেন সিভিল সার্জন জাহিদ নজরুল চৌধুরী।


ঢাকা, বৃহস্পতিবার, মার্চ ২৬, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // রি সু এই লেখাটি ১০৭ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন