সর্বশেষ
বুধবার ১৩ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ | ২৭ মে ২০২০

মিষ্টির দোকানে করোনা সন্দেশ ও কেক

সোমবার, এপ্রিল ৬, ২০২০

4.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

করোনা ভাইরাস বিশ্বের নিয়মনীতি উল্টে দিয়েছে। বেশিরভাগ মানুষ ঘরবন্দি। আতঙ্কে কাটছে বিশ্বাবাসীর সময়। এমন অবস্থায় ভারতের কলকাতায় এক মিষ্টিওয়ালা তৈরি করেছেন করোনাভাইরাস মিষ্টি ও কেক। তারপরই আলোচনায় উঠে এসেছে সেটি।আনন্দবাজার জানিয়েছে, দক্ষিণ কলকাতার যাদবপুর এলাকা। ঘণ্টা চারেকের জন্য খোলা মিষ্টির দোকানের শো-কেসে নানা সন্দেশের সঙ্গে সাজানো ছিল ওই মিষ্টি। দেখতে যেন ঠিক করোনাভাইরাস। মিষ্টি বিক্রেতা এর জন্মের আগেই ঠিক করে ফেলেছিলেন নাম। করোনা সন্দেশের পাশেই রাখা রয়েছে করোনা কেকও।

আলোড়ন ফেলা কিছু ঘটলেই সেই বিশেষ পরিস্থিতি নিয়ে নতুন মিষ্টি তৈরি করে ক্রেতাদের সামনে তুলে ধরে শহরের এই মিষ্টি বিপণি। এ শহরে রয়েছে তাদের কয়েকটি শাখা। তাদেরই একটি যাদবপুরের ওই দোকানে বসে কর্ণধার রবীন পাল জানান, বিশ্বে আলোড়ন ফেলে দেওয়া করোনাভাইরাস এখন সর্বত্র আলোচ্য বিষয়। আতঙ্কের এই আবহে সচেতনতার বার্তা ছড়িয়ে দিতে তাই কারিগরদের দিয়ে বানিয়ে ফেলা হয়েছে ওই বিশেষ সন্দেশ এবং কেক। এই মিষ্টি খাইয়ে তো বটেই, এমনকি মিষ্টির প্যাকেটেও করোনা সম্পর্কে সচেতনতার বার্তা প্রচার করা হবে বলে জানান ওই ব্যবসায়ী।

রবীনবাবু বলছেন, ‘শেষ বার আমরা বিশেষ ধরনের এই মিষ্টি বানিয়েছিলাম ইডেনে পিঙ্ক বলে দিনরাতের টেস্ট ম্যাচের সময়ে। তখন তৈরি করা হয়েছিল পিঙ্ক বলের মতো দেখতে গোলাপি মিষ্টি।’ইতিবাচক আলোড়ন ফেলে দেওয়া ওই বিষয় বর্তমান পরিস্থিতির সম্পূর্ণ বিপরীত হওয়ায় এ বারের কাজটা যে যথেষ্ট পরিশ্রমসাধ্য মানছেন কারিগরেরা। তাঁরা জানাচ্ছেন, কখনও পিঙ্ক বলের টেস্ট, কখনও বিশ্বকাপ ফুটবল বা বিশ্বকাপ ক্রিকেটের মতো আনন্দ মুহূর্তে কাজের উৎসাহ বেড়ে যায় বহুগুণ। কিন্তু এ বার তো চারধার সুনসান, আতঙ্ক আর শুধুই অনিশ্চয়তা। তার মধ্যে নতুন এই মিষ্টি তৈরি করতে তাই এতটুকু আনন্দ ছিল না। বরং সামাজিক কর্তব্য ছিল বলা যেতে পারে।


ঢাকা, সোমবার, এপ্রিল ৬, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // কে এইচ এই লেখাটি ৫৬২ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন