সর্বশেষ
বুধবার ৮ই আশ্বিন ১৪২৭ | ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০

করোনা শরীরে বাসা বাধলে হবে শুকনো কাশি, যেভাবে বুঝবেন

শনিবার, এপ্রিল ১১, ২০২০

l_0.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

ঋতু পরিবর্তনে জ্বর, সর্দি কাশি সকলেরই হচ্ছে। কিন্তু করোনার সাধারণ লক্ষণ যেহেতু জ্বর, শুকনো কাশি তাই সামান্য অসুস্থ হলেও লোকে আতঙ্কিত হয়ে পড়ছেন। কিন্তু সব জ্বর করোনা নয়। সর্দি-জ্বর মাথাব্যথা সাধারণ ফ্লুয়েরও লক্ষণ। এই সময় গরমে-ঘামে যা হয়েই থাকে।

তবে ঠান্ডা লেগে সর্দি, কাশি হলে তাতে কফ উঠে আসে। যাকে আমরা ওয়েট কাফ বলি। কিন্তু করোনার ক্ষেত্রে তা শুকনো কাশি। গলা ব্যথা, গলা শুকিয়ে যাওয়া এবং কাশি। সেই সঙ্গে অত্যধিক জ্বর এবং শ্বাসকষ্ট। তবে করোনা মোটেই ক্লিনিক্যালি ডায়াগনোসিসে ধরা পড়ে না। শুধুমাত্র কাশির তফাতেই বোঝা যাবে এমন তথ্যও এখনও প্রমাণিত হয়নি।

ড্রাই কাফ আরো বহু কারণে হতে পারে। যাদের ফুসফুসে সমস্যা রয়েছে, অতিরিক্ত ধূমপান করেন তারা সারাবছরই শুকনো কাশিতে ভোগেন। করোনা আক্রান্ত হলে জ্বর-সর্দি কাশির সঙ্গে থাকবে গলা ব্যথা ও শ্বাসকষ্ট। যেহেতু এটি ফুসফুসে আঘাত করে তাই অনেকেই নিউমোনিয়ার সঙ্গে একে গুলিয়ে ফেলছেন। কিন্তু করোনা ও নিউমোনিয়া সম্পূর্ণ আলাদা।

শরীর খারাপ লাগলে বা জ্বর শ্বাসকষ্টের মতো সমস্যা হলে অবিলম্বে চিকিৎসকের সঙ্গে যোগাযোগ করুন। ফেলে বা লুকিয়ে রাখবেন না। সমস্যা হলে আর তা ফেলে রাখলেই জটিলতা বাড়ে। করোনা শনাক্তকরণ শুধুমাত্র সোয়াব পরীক্ষা দিয়েই হয়।এছাড়াাও করোনা প্রতিরোধে যত্রতত্র থুতু, কফ ফেলবেন না। হাঁচি, কাশি এবং সর্দিতে রুমাল বা ট্যিসু ব্যবহার করুন। ব্যবহারের পর তা নির্দিষ্ট স্থানে ফেলুন। করোনা হলেই মৃত্যু আসন্ন এমনটা একেবারেই নয়। সঠিক চিকিৎসায় সুস্থ হয়ে উঠবেন। শুধু মানতে হবে কিছু নিয়ম।


ঢাকা, শনিবার, এপ্রিল ১১, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // জে এস এই লেখাটি ৯৩১ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন