সর্বশেষ
রবিবার ২১শে আষাঢ় ১৪২৭ | ০৫ জুলাই ২০২০

খেলোয়াড়দের করোনা পরীক্ষা করে লা লিগায় শুরু করতে চায় কর্তৃপক্ষ

রবিবার, এপ্রিল ২৬, ২০২০

39267474_274995429958714_2752718658257027072_n.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

বিপুল আর্থিক ক্ষতির আশঙ্কায় ফের লা লিগা চালুর বিষয়ে চিন্তা ভাবনা শুরু করেছে লিগ কর্তৃপক্ষ। তবে, তার আগে ফুটবলারদের করোনা নেগেটিভ কিনা তা দেখে নিতে চায় স্প্যানিশ অ্যাসোসিয়েশন অফ ফুটবল টিম ফিজিশিয়ান্স।যতই দিন যাচ্ছে প্রাণঘাতী করোনাভাইরাসের প্রকোপ বেড়েই চলেছে। কোভিড নাইন্টিনের ভয়াবহতায় পুরো বিশ্ব যেনো স্তব্ধ। যুক্তরাষ্ট্র, ইতালি, ফ্রান্স, ইংল্যান্ডসহ বিশ্বের প্রায় সব দেশেই করোনার প্রাদুর্ভাব বিরাজমান।

করোনা ভাইরাসের ছোবলে থমকে যাওয়া ফুটবল মৌসুম আবার কবে শুরু হবে, তার নিশ্চয়তা নেই। যদিও ঘরোয়া লিগ গুলো শেষ করার সর্বোচ্চ চেষ্টা চালাচ্ছে ইউরোপিয়ান শীর্ষ লিগ গুলোর কর্তৃপক্ষ। স্পেনে করোনার প্রকোপে এরইমধ্যে প্রাণ হারিয়েছেন ২২ হাজারেরও বেশি মানুষ। দেশটিতে দুই লক্ষেরও বেশি মানুষ কোভিড নাইন্টিনে আক্রান্ত। যেখানে বন্ধ রয়েছে স্প্যানিশ লা লিগাও। তবে পরিস্থিতি বিবেচনায় মে মাসের শেষে কিংবা জুনের প্রথম সপ্তাহে লা লিগা চালুর ভাবনা রয়েছে কর্তৃপক্ষের। যদিও সবকিছু নির্ভর করছে পরিস্থিতির ওপর।

এদিকে, স্প্যানিশ ক্লাবগুলোও অনুশীলন শুরু করার অপেক্ষায় রয়েছে। তবে তার আগে ফুটবলারদের করোনা নেগেটিভ কিনা তা দেখে নিতে চায় লা লিগা কর্তৃপক্ষ। এরইমধ্যে প্রয়োজনীয় প্রোটকলও ক্লাবগুলোতে পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।

স্প্যানিশ অ্যাসোসিয়েশন অফ ফুটবল টিম চিকিৎসকরা জানান, লা লিগার সঙ্গে যারা যুক্ত ২৮-২৯ এপ্রিল সবার টেস্ট করা হবে। আর লা লিগা শুরু হওয়া নির্ভর করছে এই টেস্টের ফলাফলের ওপর।স্প্যানিশ গণমাধ্যমে জানা যায় আর্থিক ক্ষতি এড়ানোর জন্যই দ্রুত লিগ চালুর চেষ্টা করেছে কর্তৃপক্ষ। যদিও স্পেনে করোনার কঠিন পরিস্থিতির মধ্যেও লা লিগা চালুর ভাবনা কতটা যুক্তিযুক্ত, তা নিয়েও উঠছে প্রশ্ন।

এদিকে, ইতালিয়ান সিরিয়া'র চলতি মৌসুম শেষ হওয়ার সময় বাড়ানো হয়েছে। লিগের ২০১৯-২০ মৌসুম শেষের নির্ধারিত সময় ছিল ৩০ জুন। করোনা পরিস্থিতিকে গুরুত্ব দিয়ে সিরি আর মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে ২ আগস্ট পর্যন্ত। ইতালিয়ান ফুটবল ফেডারেশনের সভাপতি গ্যাব্রিয়াল গ্র্যাভিনা জানান, এই বাড়তি সময়টা ক্লাব গুলোকে বাকি মৌসুম শেষ করার সুযোগ দেবে।বন্ধ হয়ে যাওয়া লিগগুলোর চলতি মৌসুম শেষ করতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করার সুপারিশ করেছে উয়েফা। তবে যারা শেষ করতে পারবে না, তাদের দেওয়া হয়েছে গাইড লাইন।


ঢাকা, রবিবার, এপ্রিল ২৬, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ৩০৮ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন