সর্বশেষ
বৃহঃস্পতিবার ২৯শে শ্রাবণ ১৪২৭ | ১৩ আগস্ট ২০২০

উইপোকা দমনের সহজ ফর্মুলা

বুধবার, জুলাই ১, ২০২০

termites-discovered.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

সময় এখন বর্ষাকাল। এই সময় ঘরের জিনিসপত্র নিমেষেই নষ্ট করতে পারে উইপোকা। কাগজপত্র বা বই-খাতা, টাকা এবং কাঠের জিনিসপত্রে যদি একবার উইপোকা ধরে তাহলে তা থেকে সহজে মুক্তি পাওয়া খুবই দুষ্কর। পরিবেশ যদি একটু স্যাঁতস্যাঁতে হয় তাহলে তো কথাই নেই! উইপোকার উপদ্রবে বাড়িতে কোনও জিনিসপত্র রাখাই দায় হয়ে পড়ে।

উইপোকা থেকে মুক্তি পাওয়ার সহজ উপায়-

পানি জমতে না দেয়া
বাড়ির যেসব জায়গায় আসবাবপত্র রয়েছে, তার আশপাশে কোথাও পানি জমতে দেবেন না। নর্দমা, বাড়ির আশপাশ পরিষ্কার রাখুন। কোথাও যাতে স্যাঁতসেঁতে না থাকে সেদিক খেয়াল রাখুন, কারণ উইপোকা স্যাঁতসেঁতে জায়গায় বেশি হয়।

লবণ
উইপোকা বা ঘুণ লাগা থেকে বাঁচতে লবণ ব্যবহার করাও দুর্দান্ত বিকল্প। যেখানে উইপোকা লেগেছে সেখানে লবণ দিয়ে দিন। লবণ পানি দিলেও কাজ হবে।

ন্যাপথলিন
ন্যাপথলিন রেখে দিন বইয়ের আলমারিতে, কাঠের আসবাবপত্রে বা আলনার কোণাতেও। কাপড়ের ভাজে ভাজে রাখুন বা বক্স খাটের ভিতরেও রাখতে পারেন। ন্যাপথলিনের কড়া গন্ধের ফলে উইপোকা ঘেঁষতে পারে না।

কালো জিরা
রান্নার প্রয়োজনীয় উপাদানের মধ্যে কালো জিরা অন্যতম। তবে শুধুমাত্র রান্নাই নয়, কালো জিরা হলো যেকোনো পোকা-মাকড় তাড়ানোর অব্যর্থ টোটকা। রোদে কালো জিরা শুকিয়ে তা কাপড়ের পুটলিতে বেঁধে যেখানে উইপোকা হয়েছে, তার আশেপাশে রেখে দিন। বেশ উপকার পাবেন।

নিম ও করোলা
ব্যবহার করতে পারেন নিম বা করলার রসের স্প্রে। এ ছাড়া নিমপাতা শুকিয়ে গুঁড়ো করেও বইয়ের আলমারির তাকে বা কাঠের আসবাবের কোণায় ছিটিয়ে দিন।

কর্পূর
কর্পূর গুঁড়ো করে তরল প্যারাফিনের সঙ্গে মিশিয়ে ঘরের দেওয়ালে ও আসবাবের গায়ে দিতে পারেন, কারণ কর্পূরের গন্ধও উইপোকা সহ্য করতে পারে না।

কেরোসিন
কাঠের জিনিসপত্রকে উইপোকা থেকে বাঁচাতে কেরোসিন ব্যবহার করুন। কেরোসিনের গন্ধ খুব জোরালো। কাঠের উপরে কেরোসিন স্প্রে করুন।


ঢাকা, বুধবার, জুলাই ১, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ৫৪০ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন