সর্বশেষ
বৃহঃস্পতিবার ৯ই আশ্বিন ১৪২৭ | ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০

লেবাননের সরকার পদত্যাগ করেছে

মঙ্গলবার, আগস্ট ১১, ২০২০

14.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

বৈরুতের বন্দরে ভয়াবহ বিস্ফোরণকে ঘিরে তুমুল আন্দোলনের মুখে অবশেষে পদত্যাগ করল লেবানন সরকার।

সোমবার (১০ আগস্ট)দেশটির প্রধানমন্ত্রী হাসান দিয়াব বাংলাদেশ সময় রাত সাড়ে ১০টায় সরকারের পদত্যাগের ঘোষনা দেন। বিকেলে দেশটির কয়েকজন মন্ত্রীর পদত্যাগের পর সংসদ সদস্যরাও পদত্যাগ করতে শুরু করেন। খবর-বিবিসি

রাজধানী বৈরুতে বিস্ফোরণের জেরে লাখ লাখ বিক্ষোভকারী সরকারের পদত্যাগের দাবিতে রাস্তায় নেমে আসেন। তাদের দাবির সঙ্গে একমত পোষণ করে দেশটির প্রধানমন্ত্রী হাসান দিয়াব বলেন, সরকারের বেশিরভাগই দুর্নীতিগ্রস্ত। তাদের নিয়ে বেশিদূর চলা অসম্ভব। তাই সরকারের পদত্যাগ ছাড়া কোনো পথ খোলা নেই।

এদিকে রাষ্ট্রপতি মিশেল আউন নতুন মন্ত্রিসভা গঠন না হওয়া পর্যন্ত সরকারকে তত্ত্বাবধায়ক সক্ষমতা বজায় রাখতে বলেছেন। এর আগে দেশটির গুরুত্বপূর্ণ চার মন্ত্রী পদত্যাগ করেন।

কাতারভিত্তিক সংবাদমাধ্যম আল জাজিরা জানিয়েছে, লেবাননের বিচারমন্ত্রী মারি ক্লাউদ নাজ্ম, তথ্যমন্ত্রী মানাল আবদেল সামাদ এবং পরিবেশমন্ত্রী দামিয়ানোস কাত্তার ইতোমধ্যেই পদত্যাগ করেছেন। সর্বশেষ সোমবার পদত্যাগের ঘোষণা দেন বিচারমন্ত্রী মারি নাজ্ম। আর অর্থমন্ত্রী গাজী ওয়াজনি তার পদত্যাগপত্র নিয়ে মন্ত্রিসভার অধিবেশনে আসেন। তবে অধিবেশন শেষ না হওয়া পর্যন্ত এটি বহাল ছিল।

গত ৪ আগস্ট মঙ্গলবার একটি গুদামে বিস্ফোরণে প্রায় ২০০ মানুষের মৃত্যু এবং ছয় হাজারের বেশি মানুষ আহত হওয়ার পর সরকারের পদত্যাগের দাবিতে আন্দোলনে নেমেছে বৈরুতবাসী। তুমুল বিক্ষোভ দমাতে সক্রিয় রয়েছে নিরাপত্তা বাহিনীর সদস্যরা। এরইমধ্যে গ্রেফতার করা হয়েছে প্রায় তিন হাজার মানুষকে।


ঢাকা, মঙ্গলবার, আগস্ট ১১, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // এস বি এই লেখাটি ৩৭১ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন