সর্বশেষ
বুধবার ৮ই আশ্বিন ১৪২৭ | ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২০

বেলকুচিতে বাল্যবিবাহ বন্ধ করলেন ইউএনও

শুক্রবার, আগস্ট ১৪, ২০২০

141.png
সলঙ্গা (সিরাজগঞ্জ) প্রতিনিধি :

সিরাজগঞ্জের বেলকুচিতে মহামারী করোনা আতংকের মাঝে বিভিন্ন সামাজিক সভা সেমিনার রাজনৈতিক প্রোগ্রামসহ জনসমাগম হয় এরকম অনুষ্ঠান সরকার কর্তৃক নিষেধ রয়েছে। কিন্তু এত সমস্যার মধ্যেও থেমে নেই বাল্যবিবাহ দেয়ার চেষ্টা। স্বাভাবিকের চেয়ে করোনার মধ্যে বেশি হচ্ছে বাল্যবিবাহ। কিন্তু এই বাল্যবিবাহ বন্ধ করলেন সিরাজগঞ্জ জেলার বেলকুচি উপজেলার ইউএনও।

বৃহস্পতিবার (১৩ আগস্ট)বিকালে সিরাজগঞ্জ জেলার বেলকুচি পৌরসভার চন্দনগাতী বসুন্ধরা এলাকায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আনিসুর রহমান কনের বাড়ীতে উপস্থিত হন।উপস্থিত হয়ে বাল্যবিবাহের আয়োজন বন্ধ করে দেন তিনি । অষ্টম শ্রেনীতে পড়ুয়া ছাত্রীকে বাল্যবিবাহ থেকে রক্ষা করেন।

তখন কনের বাড়ীতে কনে বেলকুচি পৌরসভার চন্দনগাতী বসুন্ধরা এলাকার অষ্টম শ্রেণীর ছাত্রী (১৩) এর সাথে সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার মাইঝাইল গ্রামের মিষ্টান্ন শ্রমিক (২২) এর বিয়ের আয়োজন চলছিল। কনে স্থানীয় উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেনীর ছাত্রী।কনে অপ্রাপ্তবয়স্ক।ভ্রাম্যমাণ আদালত বাল্যবিবাহ বন্ধ করে কনের মাকে বাল্যবিবাহের কুফল সম্পর্কে বুঝালে তিনি তার ভুল বুঝতে পারেন এবং তার মেয়েকে প্রাপ্তবয়স্ক না হওয়া পর্যন্ত বিবাহ দিবেন না বলে মুচলেকা দেন।

এ সময় আরও উপস্থিত ছিলেন বেলকুচি পৌর কাউন্সিলর মোঃ ফজল হোসেন ও পেশকার মোঃ হাফিজ উদ্দিন।


ঢাকা, শুক্রবার, আগস্ট ১৪, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // উ জ এই লেখাটি ৪৪৫ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন