সর্বশেষ
শুক্রবার ২০শে অগ্রহায়ণ ১৪২৭ | ০৪ ডিসেম্বর ২০২০

২৬ মার্চ মোদীকে ঢাকা সফরের আমন্ত্রণ

সোমবার, অক্টোবর ১৯, ২০২০

13.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে ২৬ মার্চ এখানে আসার আমন্ত্রণ জানানো হয়েছে।

গতকাল রোববার রাজধানীর রাষ্ট্রীয় অতিথি ভবন পদ্মায় ঢাকায় নবনিযুক্ত ভারতীয় হাই কমিশনার বিক্রম দোরাইস্বামীর সঙ্গে প্রথম বৈঠকের পর পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আবদুল মোমেন সাংবাদিকদের বলেন, আমরা তাকে (নরেন্দ্র মোদী) আমন্ত্রণ করেছি এবং তারা নীতিগতভাবে আমন্ত্রণ গ্রহণ করেছে।’

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী উদযাপনে যোগ দিতে এ বছর ভারতের প্রধানমন্ত্রীর সফর করার কথা ছিল। কিন্তু কোভিড-১৯ মহামারীর কারণে এই সফর বাতিল করা হয়েছে।

তিনি বলেন, বাংলাদেশ ও ভারত আগামী বছর একসাথে বাংলাদেশের স্বাধীনতার ৫০ বছর উৎসব উদযাপন করবে এবং আশা করেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী এই উৎসবের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন।

মোমেন বলেন, ‘আমাদের জয় ভারতের জয়। আমাদের একসাথে উদযাপন করা উচিত।’

ডিসেম্বরে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর মধ্যে একটি ভার্চুয়াল বৈঠক হবে।

তিনি বলেন, তারিখ এখনো নির্ধারণ করা হয়নি… এটি সম্ভবত ১৬ অথবা ১৭ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে।

নব নিযুক্ত ভারতীয় হাই কমিশনারের সঙ্গে প্রথম সাক্ষাৎ সম্পর্কে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, নতুন ভারতীয় হাই কমিশনার বাংলাদেশের সংবেদনশীলতা বুঝতে পারায় তাদের মধ্যে ভালো আলোচনা হয়েছে।

মোমেন বলেন, তিনি (হাই কমিশনার) আমাদের (বাংলাদেশ-ভারত) বিষয়গুলো জানেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তিনি ইন্ডিয়ান লাইন অফ ক্রেডিট (এলওসি) এর অধীনে প্রকল্পগুলোর সুষ্ঠভাবে বাস্তবায়নের উপর জোর দেন এবং দোরাইস্বামী আশ্বাস দেন তিনি এ বিষয়ে কাজ করবেন।

উভয় পক্ষ সীমান্ত হত্যা সংক্রান্ত বিষয় নিয়েও আলোচনা করেছে। মোমেন বলেন, তিনি (হাই কমিশনার) আমাকে বলেছেন সীমান্ত হত্যা বন্ধ করার জন্য (ভারতের পক্ষ থেকে) আন্তরিক প্রচেষ্টা রয়েছে।

তিনি বিদ্যমান বাংলাদেশ-ভারত সম্পর্ককে অত্যন্ত ভালো বলে অভিহিত করেছেন এবং আলোচনার মাধ্যমে দ্বিপাক্ষিক ইস্যুর শান্তিপূর্ণভাবে সমস্যার সমাধান করে দুই দেশ ইতোমধ্যে বিশ্বে একটি দ্রষ্টান্ত স্থাপন করেছে।

ভারত ও মিয়ানমারের সঙ্গে স্থল ও সমুদ্রসীমা নির্ধারণের বিষয় উল্লেখ করে মোমেন বলেন, প্রতিবেশীদের সঙ্গে শান্তিপূর্ণভাবে বিরোধ নিষ্পত্তি করে বাংলাদেশ বিশ্বে একটি উদাহরণ সৃস্টি করেছে।

‘এ থেকে নেতৃত্বের পরিপক্কতা বুঝা যায়’, তিনি আরও যোগ করেন।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, তিনি ২৮ শে অক্টোবর থেকে শুরু হওয়া ‘এয়ার বাবেল’ এর আওতায় বিমান যোগাযোগ পুনরায় চালু করার মতো বাংলাদেশী নাগরিকদের জন্য তার স্থল সীমা খোলার আহ্বান জানিয়েছেন। মোমেন ভারতের মেহেরপুর জেলার মুজিবনগরে বাংলাদেশ-ভারত সীমান্ত বরাবর দুই কিলোমিটার দীর্ঘ ‘স্বাধীনতা সড়ক’ গড়ে তোলার প্রস্তাব দেন। সূত্র: বাসস


ঢাকা, সোমবার, অক্টোবর ১৯, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // এস বি এই লেখাটি ৩৮৫ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন