সর্বশেষ
রবিবার ১১ই মাঘ ১৪২৭ | ২৪ জানুয়ারি ২০২১

জলপাই যেভাবে সারাবছর সংরক্ষণ করবেন

বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ২৬, ২০২০

26.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

জলপাই একটি গ্রীষ্মমন্ডলীয় টক ফল। এর বৈজ্ঞানিক নামঃ Elaeocarpus serratus। এটি সিলন অলিভ নামেও পরিচিত। ভারতীয় উপমহাদেশ, ইন্দোচীন ও দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার বিভিন্ন অঞ্চলে এই ফল উৎপাদিত হয়।

প্রতি ১০০ গ্রাম জলপাইয়ে খাদ্যশক্তি ৭০ কিলোক্যালরি, ৯ দশমিক ৭ শর্করা, ৫৯ মিলিগ্রাম ক্যালসিয়াম, ১৩ মিলিগ্রাম ভিটামিন-সি।

রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়: জলপাই প্রাকৃতিক অ্যান্টিঅক্সিডেন্ট। এতে প্রচুর পরিমাণে ভিটামিন সি আছে। সর্দি, জ্বর ইত্যাদি দূরে থাকে। রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ে।

ডায়াবেটিস নিয়ন্ত্রণ করে: জলপাই রক্তের চিনি নিয়ন্ত্রণে রাখতে সাহায্য করে।

মৌসুম থাকতে থাকতেই মজার মজার সব আচার বানিয়ে ফেলতে পারেন। শরবতের পাশাপাশি ডাল, ছোট মাছ অথবা সবজির তরকারিতেও চমৎকার স্বাদ নিয়ে আসে জলপাই। চাইলে সারাবছর সংরক্ষণ করে খেতে পারেন ফলটি। জেনে নিন কীভাবে সংরক্ষণ করবেন।

লবণ পানি

লবণ-পানিতে ডুবিয়ে মাস ছয়েক সংরক্ষণ করতে পারেন জলপাই। এজন্য তাজা ও কোনও ধরনের দাগ ছাড়া জলপাই বেছে নিন। ভারি কিছু দিয়ে আঘাত করে সামান্য ফাটিয়ে নিন জলপাই। এবার একটি কাচের বয়ামে জলপাইগুলো ভালো করে সাজিয়ে রাখুন। একটি জগে পানি নিয়ে লবণ মেশান। একটি আস্ত ডিম জগের পানিতে দিন। যদি ডিম ভেসে ওঠে তাহলে বুঝবেন লবণের পরিমাণ ঠিক আছে। ভেসে না উঠলে আরও খানিকটা লবণ মেশান। জলপাই ভর্তি বয়ামে পানি ঢেলে দিন এমনভাবে যেন সব জলপাই ডুবে থাকে। উপরে একটি চিজক্লথ দিয়ে ঢাকনা লাগিয়ে দিন। এক সপ্তাহ পর থেকে খেতে পারবেন লবণ-পানিতে সংরক্ষিত জলপাই। খাওয়ার আগে বের করে ঠাণ্ডা পানিতে ভিজিয়ে রাখুন ঘণ্টাখানেক। এতে লবণাক্ত স্বাদ কমে আসবে। প্রতি মাসে একবার করে বদলে দিতে হবে বয়ামের পানি।

আস্ত জলপাই

জলপাইয়ের বোঁটা ছাড়িয়ে ধুয়ে নিন বারকয়েক। ভালো করে মুছে একটি প্লাস্টিকের ব্যাগে ভরে ব্যাগের বাতাস বের করে ফেলুন। ডিপ ফ্রিজে রেখে দিন ব্যাগ। এক বছর পর্যন্ত ভালো থাকবে জলপাই।

সেদ্ধ জলপাই

কড়াইয়ে পানি ও ১ চা চামচ লবণ একসঙ্গে মিশিয়ে জলপাই সামান্য ভাপিয়ে নিন। পানি থেকে উঠিয়ে মুছে মুখবন্ধ বাটিতে করে রেখে দিন ডিপ ফ্রিজে। রান্নার আগে বের করে নিন।

পিউরি

জলপাই সেদ্ধ করে চটকে নিন। সামান্য পানি দিয়ে ব্লেন্ড করে পিউরি পানিয়ে নিন। এবার মিহি পিউরি বাটিতে ঢাকনা লাগিয়ে রেখে দিন ফ্রিজারে। শরবত বানানোর আগে বের করে প্রয়োজন মতো মিশিয়ে নিন পানি ও অন্যান্য উপকরণের সঙ্গে।


ঢাকা, বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ২৬, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // এস বি এই লেখাটি ৫২৮ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন