সর্বশেষ
মঙ্গলবার ১৩ই মাঘ ১৪২৭ | ২৬ জানুয়ারি ২০২১

ফাইজারের টিকার অনুমোদন দিল বাহরাইন

শনিবার, ডিসেম্বর ৫, ২০২০

22.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

করোনাভাইরাস মোকাবিলায় ভ্যাকসিন নিয়ে প্রতিদিনই কোন না কোন আশার খবর পাওয়া যাচ্ছে। মার্কিন ফার্মাসিউটিক্যাল জায়ান্ট ফাইজার ও জার্মানের বায়োএনটেকের যৌথভাবে তৈরি করোনা টিকা ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে বাহরাইন। বিশ্বের দ্বিতীয় দেশ হিসেবে এই টিকার অনুমতি দিল দেশটি। গত ৩ ডিসেম্বর প্রথম দেশ হিসেবে এই টিকা ব্যবহারের অনুমতি দেয় যুক্তরাজ্য।

শুক্রবার (৪ ডিসেম্বর) বাহরাইনের জাতীয় স্বাস্থ্য নিয়ন্ত্রণ কর্তৃপক্ষ (এনএইচআরএ) এই টিকার অনুমোদনের কথা জানায়। দেশটির জাতীয় বার্তা সংস্থা বিএনএ’র বরাত দিয়ে এ খবর জানায় আল জাজিরা।

পরীক্ষার চূড়ান্ত ধাপে ভ্যাকসিনটি মানুষকে করোনা সংক্রমণ থেকে ৯৫ শতাংশ রক্ষা করতে সক্ষম হয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে। ভ্যাকসিনটির ৪ কোটি ডোজের অর্ডার দিয়েছে যুক্তরাজ্য। ইতোমধ্যে ভ্যাকসিনটির প্রথম চালান দেশটিতে পৌঁছেও গেছে। তবে বাহরাইন সরকার কি পরিমাণ টিকা কিনেছে এ বিষয়ে মন্তব্য করেনি।

প্রতিবেদনে বলা হয়, বাহরাইনের জন্য ফাইজারের টিকা পরিবহন ও বিতরণ বড় চ্যালেঞ্জ হবে। কারণ এই টিকা পরিবহন ও সংরক্ষণ করতে হবে মাইনাস ৭০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায়। আর মধ্যপ্রাচ্যের দেশ বাহরাইনে তাপমাত্রার পারদ ৪০ ডিগ্রি সেলসিয়াস ছাড়িয়ে যায় নিয়মিতই।

বাহরাইন টিকা পরিবহনে তাদের রাষ্ট্রীয় বিমান সংস্থা গালফ এয়ারের উড়োজাহাজ ব্যবহার করতে পারে। এছাড়া তাদের পার্শ্ববতী দেশ সংযুক্ত আরব আমিরাতের এমিরেটস এয়ারলাইন্স জানিয়েছে, তারা উচ্চশীতল তাপমাত্রায় টিকা পরিবহনের জন্য নিজেদের প্রস্তুত করছে। করোনা সংক্রমণ থেকে মুক্ত হতে এই টিকা তিন সপ্তাহের ব্যবধানে দুই ডোজ নিতে হবে।

বাহরাইন ইতোমধ্যে চীনের সিনোফর্মের তৈরি করোনা টিকার জরুরি ব্যবহারের অনুমোদন দিয়েছে। এই টিকা প্রায় ৬ হাজার মানুষকে দেওয়া হয়েছে।

বাহরাইনে এখন পর্যন্ত ৮৭ হাজারের বেশি মানুষ করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে মৃত্যু হয়েছে ৩৪১ জনের। আক্রান্তদের মধ্যে ৮৫ হাজারের বেশি ইতোমধ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন। বাহরাইনের সরকার জানিয়েছে, তারা দ্বীপটিতে ২০ লাখের বেশি করোনা পরীক্ষা সম্পন্ন করেছে।


ঢাকা, শনিবার, ডিসেম্বর ৫, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // এস বি এই লেখাটি ৫১৮ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন