সর্বশেষ
বুধবার ৭ই অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ২১ নভেম্বর ২০১৮

‘মানুষের যা ইচ্ছা বলতেই পারে’

শুক্রবার, এপ্রিল ১০, ২০১৫

459402473_1428678576.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
সদ্য সমাপ্ত বিশ্বকাপে ভারত যেন উড়ছিল। গ্রুপপর্বের সবকটি ম্যাচে জয় তুলে নিয়েছিল তারা। বিতর্ক হলেও কোয়ার্টার ফাইনালে বাংলাদেশের বিপক্ষে জিতেছিল মহেন্দ্র সিং ধোনির দল। এরপর সেমিফাইনালে তারা পেয়েছিল স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়াকে।

আর সেই সেমিফাইনাল দেখতে অস্ট্রেলিয়ায় উড়ে যান আনুশকা শর্মা। টিম ইন্ডিয়াকে অনুপ্রেরণা যোগাতেই সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ডের গ্যালারিতে সেদিন গলা ফাটিয়েছিলেন বলিউড এই অভিনেত্রী। কিন্তু ম্যাচটিতে অসিদের কাছে ৯৫ রানে হেরে যায় ভারত।

ওই ম্যাচে ১৩ বল খেলে মাত্র এক রান করতে সক্ষম হন আনুশকার বন্ধু বিরাট কোহলি। আর তাতে সমালোচনার তীরে বিদ্ধ হন আনুশকা। ভারতের হারের দায় গিয়ে বর্তায় তার ওপর। তাদের যুক্তি, আনুশকার কারণেই নাকি কোহলি ভালো খেলতে পারেননি। ঘটনাটি শুধু সেদিনই ঘটেছে, এমন নয়, ঘটছে নাকি অহরহ।

এজন্য আনুশকাকে নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমগুলোতে বেশ আলোচনা হয়েছে। আজেবাজে মন্তব্য করতে ভুল করেননি ভারতের কট্টর সমর্থকরা। আনুশকাকে ছেড়ে দেয়নি ভারতের মিডিয়াও। বলিউড অভিনেত্রীকে ‘চিয়ার-লিডার’ আখ্যা দিয়েছিল তারা। সমালোচনা থামেনি এখনও। চলছে অবিরত। এতে ভীষণ হতাশ বিরাট কোহলি।

শুক্রবার সকালে ব্যাঙ্গালুরুর একটি পাঁচতারা হোটেলে এ বিষয়ে কোহলি বলেন, ‘সেমিফাইনালে ভালো খেলতে না পারায় আমি ভীষণ হতাশ ছিলাম। শেষ পাঁচ বছরে আমি ভারতীয় দলের জন্য যা করেছি, আর কেউ সেরকম করেনি! আমার সত্যিই খারাপ লাগে এ ধরনের কথাবার্তা শুনে। কিন্তু এতে আমার হাত নেই। মানুষের মুখ আছে, তারা বলতেই পারে। এরকম পরিস্থিতিতেই বোঝা যায়, কে আমার সঙ্গে কে আছে, আর কে নেই। তবে এই নিয়ে আর ভাবছি না। আর ভাবতেও চাই না।’

ঢাকা, শুক্রবার, এপ্রিল ১০, ২০১৫ (বিডিলাইভ২৪) // এম এস এই লেখাটি ১৪১৪ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন