সর্বশেষ
সোমবার ৫ই অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ১৯ নভেম্বর ২০১৮

পৃথিবীর প্রাচীনতম 'ত্বক' এর সন্ধান দ. আফ্রিকায়!

সোমবার, মে ১১, ২০১৫

388053773_1431338431.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
প্রাচীন সভ্যতায় মমি তৈরির একাধিক প্রমাণ ইতোমধ্যেই পেয়েছে বর্তমান বিশ্ব। কিন্তু আদিম গুহাবাসী মানুষও মমি তৈরি করতে জানত? সম্প্রতি দক্ষিণ আফ্রিকায় পাওয়া আদিম মানুষের একটি জীবাশ্ম অন্তত সেরকমই প্রমাণ দিচ্ছে। বিজ্ঞানীরা জানাচ্ছেন, দক্ষিণ আফ্রিকার মালাপা এলাকায় মাটির তলা থেকে ২০ লক্ষ বছর আগের ৬টি মমি মিলেছে, যেগুলিতে এখনও ত্বক লেগে রয়েছে। এটাই পৃথিবীর প্রাচীনতম মানব ত্বক বলেই মনে করা হচ্ছে।

দক্ষিণ আফ্রিকার জোহানেসবার্গের কাছে মালাপা এলাকায় একটি প্রাচীন গুহা সংলগ্ন অঞ্চলে মিলেছে ৬টি আদিম কঙ্কালের জীবাশ্ম। জীবাশ্মগুলি পরীক্ষা করতে গিয়ে অবাক বিজ্ঞানীরা। ত্বক ও টিস্যু লেগে রয়েছে কঙ্কালগুলিতে। পাওয়া গিয়েছে দাঁতও। সেই দাঁতের ফাঁকে পাওয়া গিয়েছে খাদ্য ও শস্যের টুকরো। প্রত্নতত্ত্ববিদ দলের প্রধান অধ্যাপক লি বারগারের কথায়, 'আমরা যে জীবাশ্মগুলি পেয়েছি, সেগুলি শুধুই পাথর নয়। নানা ভেষজ ওষুধ দিয়ে মমি করে রাখা দেহাংশ। সেই কারণেই এত লক্ষ বছর পরেও চামড়া ও দাঁতের অস্তিত্ব স্পষ্ট।'

এই কঙ্কালগুলি থেকে আদিম গুহাবাসী মানুষের দেহের গড়নের আরও কিছু তথ্যও পাওয়া গিয়েছে। লি বারগার জানাচ্ছেন, এই মানুষেরা দু'পায়ে হাঁটতে পারত। কিন্তু ১.৩ মিটারের বেশি সোজা হয়ে দাঁড়াতে পারত না। হাতের আকৃতি দেহের তুলনায় বড় ছিল। আঙুলগুলি বাঁকা ছিল। ফলে তারা যে গাছে উঠতে জানত, তার প্রমাণ মিলছে।


ঢাকা, সোমবার, মে ১১, ২০১৫ (বিডিলাইভ২৪) // আর কে এই লেখাটি ২৬০০ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন