সর্বশেষ
রবিবার ৪ঠা অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ১৮ নভেম্বর ২০১৮

মাইনক্রাফট গেইমে আসক্ত শিশুরা!

রবিবার, মে ১৭, ২০১৫

427744982_1431861962.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
ইউটিউবের অফিসিয়াল হিসাব অনুযায়ী তাদের সাইট থেকে শুধু মাত্র মার্চ মাসেই ৩ দশমিক ৯ বিলিয়ন বা ৩ কোটি ৯০ লাখ বার দেখা হয়েছে মাইনক্রাফট গেইমটি। এ কারণেই সফটওয়্যার জায়ান্ট মাইক্রোসফটের গেইম মাইনক্রাফট ভিডিও স্ট্রিমিং সাইট ইউটিউবে সবচেয়ে জনপ্রিয় ভিডিও গেইমের স্বীকৃতি পেলো।

বিশ্বজুড়ে এই বিশাল দর্শকের বেশিরভাগই শিশুরা। অ্যানিমেশন গেইমটির মাধ্যমে শিশুরা বিভিন্ন স্থাপনা যেমন- ঘর, ব্রিজ, ফার্মহাউজ ও ম্যাপ তৈরি ও স্থাপনা রক্ষায় যুদ্ধ করতে পারে।

মাইক্রোসফটের গেইমটির বিষয়ে অনেক আলোচনা-সমালোচনা হয়েছে। ভিডিও গেইমসটিতে শিশুদের আসক্তির কারণ বুঝতে না পারা অভিভাবকরা হতাশ ও ক্ষুদ্ধ। তবে অনেক অভিভাবক আছে যারা মনে করেন গেইমটি শিশুদের সৃষ্টিশীলতা শেখাতে সহায়তা করছে।

গবেষকরাও মনে করছেন, গেইমটি শিশুদের উপর প্রভাব ফেলে।

গেইমটি শিশুদের স্বাভাবিক মানুষিক বিকাশ বাধাগ্রস্ত করছে এমন অভিযোগে মার্চে তুরস্ক গেইমটি সেদেশে বন্ধ করে দেওয়ার পরিকল্পনা করেছিল। এমনকি শিশুদের উপর মাইনক্রাফটের প্রভাব নিয়ে দেশটি পরিবার ও সামজিক নীতি বিষয়ক মন্ত্রনালয় একটি গবেষণা প্রতিবেদনও প্রকাশ করে। পরে মাইক্রোসফটও গেইমটির বিষয়ে গবেষণার ঘোষণা দেয়।

শুধু তুরস্ক নয় গেইমটি বন্ধ করতে পশ্চিমা বিশ্বে অনেক অভিভাবকই সোচ্চার। শিশু এবং তরুণদের মধ্যে গেইমটির আসক্তিতে উদ্বেগ প্রকাশ করে থাকেন অনেক অভিভাবক। তাদের অভিযোগ মাইনক্রাফট তাদের সন্তানদের পড়াশোনার উপরও প্রভাব ফেলছে।

উল্লেখ্য, গত বছরের সেপ্টেম্বরে আড়াই বিলিয়ন মার্কিন ডলারে গেইমটি কিনে নেয় মাইক্রোসফট। কিনে নেওয়ার পর মাইনক্রাফট প্রথম যে গেইমটি রিলিজ করে সেই ভার্সনটি বিক্রি হয়েছে ৫৪ মিলিয়ন কপি।

ঢাকা, রবিবার, মে ১৭, ২০১৫ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ১৬৬৮ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন