সর্বশেষ
বুধবার ৫ই পৌষ ১৪২৫ | ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮

যে ৪ কারণে অধিনায়কত্ব ছাড়া ভালো ধোনির

বুধবার, জুন ২৪, ২০১৫

588230488_1435086892.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
বাংলাদেশের বিরুদ্ধে সিরিজের ২য় ম্যাচে হারার পর ধোনি বলেন, যদি ভারতীয় ক্রিকেটের ভালো কিছুর জন্য আমাকে সরিয়ে দেওয়া হয়, তাহলে আমি সরে যাব৷‌ আমার কোনো সমস্যা নেই৷‌ আমি অধিনায়ক থাকার জন্য পাগল নই৷‌ আমি ক্রিকেটার হিসেবে দলে খেলব৷‌ তাতেও আমার কোনও অসুবিধা নেই৷‌এভাবেই নেতৃত্ব ছাড়ার ইঙ্গিত দিয়েছিলেন 'ক্যাপ্টেন কুল'।

কোহলি-সঠিক উত্তরাধিকারী : ধোনির পর টেস্টের মতো ওয়ানডেতেও ভারতের নেতৃত্বে বিরাট কোহলি আসবেন এটা প্রায় নিশ্চিত। ইতিমধ্যে তিনি টেস্টে নিজের নেতৃত্ব গুণ দেখিয়েছেন। বাংলাদেশের বিপক্ষে একমাত্র টেস্টে কোহলি টিম ডিরেক্টর রবি শাস্ত্রীর সঙ্গে পরামর্শ করে দারুণ কিছু সিদ্ধান্ত নেন। ওয়ানডেতেও তাকে পাকা করে তোলার জন্য এখনও তার হাতে নেতৃত্ব ছেড়ে দেয়া দরকার।

বাজে পারফরম্যান্স : মহেন্দ্র সিং ধোনির সাম্প্রতিক পারফরম্যান্স ভালো নয়। দেশ ও ভারতীয় প্রিমিয়ার লীগে (আইপিএল) তার ব্যাট তেমন কথা বলছে না। আইপিএলে আগের আসরগুলোতে তিনি ছিলেন চেন্নাই সুপার কিংসের অন্যতম ভরসা। কিন্তু সর্বশেষ আসরে তিনি তেমন ভূমিকা রাখতে পারেন নি। এ ছাড়া বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ওয়ানডে সিরিজ হার এড়াতে পারেন নি তিনি। দেশের হয়ে সর্বশেষ ১২ ওয়ানডেতে তিনি মাত্র ২ ফিফটি দেখেছেন। সর্বশেষ টানা ২৮ ম্যাচে কোন সেঞ্চুরি নেই। এমন পারফরম্যান্সের কারণে বর্তমান বিশ্বের সবচেয়ে সমীহ জাগানো ব্যাটসম্যান বিরাট কোহলির হাতে দায়িত্ব ছেড়ে দেয়া উচিত।

ভুল সিদ্ধান্ত : ভারতের বর্তমান দলে কোন খেলোয়াড়কে নিয়ে যদি সবচেয়ে বেশি প্রশ্ন থাকে তিনি বরীন্দ্র জাদেজা। দলে নিয়মিত খেলছেন অলরাউন্ডার হিসেবে। কিন্তু নিয়মিতই ব্যর্থ তিনি। ব্যাট-বল কোনদিকেই তার অবদান নেই। কিন্তু মহেন্দ্র সিং ধোনি তাকে নিয়মিতই দলে রেখে চলেছেন। তাকে কেন দলে রাখা হয় তা এক বড় প্রশ্ন। বাংলাদেশের বিপক্ষে দ্বিতীয় ওয়ানডেতে আজিঙ্কা রাহানেকে বসিয়ে রাখা হয়। অথচ দেশের বাইরে তার ব্যাট নিয়মিতই কথা বলে। সর্বশেষ ভারতীয় প্রিমিয়ার লীগেও (আইপিএল) তার ব্যাট ছিল উজ্জ্বল। ম্যাচ শেষে তাকে দলে না রাখার ব্যাখ্যা দিয়ে ধোনি বলেন, স্লো পিচে সে স্বাচ্ছন্দ্য নয়। অথচ রাহানের রেকর্ড মোটেও তা বলে না। ধোনির এ একঘেয়ে সিদ্ধান্তের কারণে ভারত ক্রিকেট দল ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

সব ফরম্যাটে এক অধিনায়ক এবং বয়স : দলের সমন্বয় করার জন্য ওয়ানডে ও টেস্টে এক অধিনায়ক দরকার। টেস্টের মতো ওয়ানডের নেতৃত্বও যদি বিরাট কোহলির হাতে দেয়া হয় তাহলে তিনি অনেক শক্তি ও আত্মবিশ্বাস পাবেন। কয়েকজন খেলোয়াড় আছেন যারা টেস্টে ভাল করে, আবার কয়েকজন আছেন ওয়ানডেতে ভাল করেন। এ দুই ধরনের খেলোয়াড়দের সঙ্গে কোহলির বোঝাপড়াটা ভাল হবে। ভারত ক্রিকেট দলে বর্তমানে সবচেয়ে বয়স্ক খেলোয়াড় মহেন্দ্র সিং ধোনি (৩৩ বছর)। এখন তার খেলায় বয়সের ছাপ স্পষ্ট। তার ট্রেডমার্ক হেলিকপ্টার শট। কিন্তু সর্বশেষ অনেক দিন তার সে শট দেখা যায় নি। এটা তার বয়সেরই ছাপ। এ ছাড়া মাঠে সিদ্ধান্ত নিতেও এখন মাঝেমধ্যে ভুল করছেন। ভারতের এখন প্রয়োজন একজন আক্রমণাত্মক অধিনায়ক। তরুণ রক্ত নিয়ে যিনি ভারতকে আরও এগিয়ে দেবেন।

ঢাকা, বুধবার, জুন ২৪, ২০১৫ (বিডিলাইভ২৪) // এম এস এই লেখাটি ১৩৮৪ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন