সর্বশেষ
মঙ্গলবার ২৬শে অগ্রহায়ণ ১৪২৬ | ১০ ডিসেম্বর ২০১৯

যে কারণে তাসকিনের মা কখনোই স্টেডিয়ামে আসেন না

বুধবার, জুন ২৪, ২০১৫

179106322_1435094930.jpg
বিডিলাইভ রিপোর্ট :
ছেলের খেলা কখনো স্টেডিয়ামে গিয়ে দেখেন না তাসকিন আহমেদের মা সাবিনা ইয়াসমিন। এমনিতেই যে টেনশনে থাকি, তার ওপর সামনাসামনি খেলা দেখা। অসম্ভব! তাই তো তিনি ঢাকার মোহাম্মদপুরের বাড়িতে বসে টিভিতে খেলা দেখেন। ছেলে বোলিং করলে বুক ঢিপঢিপ করতে থাকে তার। যতক্ষণ ছেলের খেলা চলে ততক্ষণ দোয়া পড়েন তিনি।

সাবিনা ইয়াসমিন বলেন, তাসকিন আমার একমাত্র ছেলে। তিন ছেলেমেয়ের মধ্যে বড়। ছোটবেলায় ওর বাবা খেলার জন্য রাগারাগি করত। আমি কখনো ওকে বকা দিইনি, মারিওনি। সবার খুব আদরের।

তাসকিন আহমেদের ডাক নাম তাজিম। কিন্তু বাড়িতে আদর করে দাদি ডাকে ধলা, মা-বাবা ডাকে আব্বু, বাবু বা মানিক বলে। ছেলে লম্বা ছিল, তাই মা-বাবা ভেবেছিলেন, সেনাবাহিনীর কর্মকর্তা বানাবেন। তাসকিনের মা মনে করেন, ক্রিকেটার হয়েই ভালো হয়েছে। সবাই তো চিকিৎসক, প্রকৌশলী হয়। কজন এমন ক্রিকেটার হতে পারে। ছেলেকে নিয়ে তাদের গর্বের শেষ নেই। ছেলে যে দেশের জন্য খেলে, দেশের সম্পদ।

আপনি ছেলের খেলা সব সময় দেখেন, আপনার দৃষ্টিতে ছেলের পারফরম্যান্স কেমন মনে হয়েছে? এমন প্রশ্নে তিনি বলেছেন, প্রিমিয়ার লিগটা ওর (তাসকিন) জন্য প্লাস পয়েন্ট। কারণ মাঝে ভারতে খেলতে গিয়ে ইনজুরিতে পড়েছিল। তাই জিম্বাবুয়ে সিরিজে খেলতে পারেনি। এ জন্য প্রিমিয়ার লিগটা ওর (তাসকিন) জন্যে খুব গুরুত্বপূর্ণ ছিল। সে ভাল পারফরম্যান্স করেছে। এ জন্য নির্বাচক ও ক্রিকেট বোর্ড তাসকিনের ওপর ভরসা রাখতে পেরেছে।

বিশ্বকাপে ছেলের কাছে কোনো প্রত্যাশা থাকছে কিনা, এমন প্রশ্নে আব্দুর রশিদ বলেছেন, অনূর্ধ্ব-১৯ বিশ্বকাপে তাসকিন ছিল বাংলাদেশের পক্ষে পেস বোলিংয়ের ত্রাস। ঠিক এবারও আমার প্রত্যাশা থাকবে তাসকিন যেন বাংলাদেশের ত্রাস হয়েই থাকে বিশ্বকাপে।

ঢাকা, বুধবার, জুন ২৪, ২০১৫ (বিডিলাইভ২৪) // এম এস এই লেখাটি ২২২৭১ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন