সর্বশেষ
মঙ্গলবার ২৯শে কার্তিক ১৪২৫ | ১৩ নভেম্বর ২০১৮

অ্যাপ স্টোরে হাজারো ক্ষতিকর অ্যাপ্লিকেশন!

শনিবার, জুলাই ২৫, ২০১৫

908285766_1437821552.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
অফিশিয়াল অ্যাপ্লিকেশন স্টোর থেকে অ্যাপ কেনার পরও তাতে ক্ষতিকর ভাইরাসের উপস্থিতি থাকতে পারে। সম্প্রতি ফরেনসিক নামের একটি প্রতারণা প্রতিরোধকারী প্রতিষ্ঠান এ নিয়ে গবেষণা করেছে। প্রতিষ্ঠানটির গবেষকেরা বলছেন, অ্যাপ স্টোরে ক্ষতিকর বিজ্ঞাপন দেখিয়ে প্রতারণা করা হাজারো অ্যাপ্লিকেশন তাঁরা খুঁজে পেয়েছেন। নতুন ধরনের এ বিজ্ঞাপন প্রতারণাকে তারা বলছেন— ‘মোবাইল ডিভাইস হাইজ্যাকিং।’ এই ক্ষতিকর ভাইরাসপূর্ণ অ্যাপ্লিকেশন অ্যাপলের অ্যাপ স্টোর, গুগলের প্লে স্টোর ও মাইক্রোসফটের উইন্ডোজ ফোন স্টোরেও রয়েছে।

গবেষকেরা বলছেন, বিভিন্ন অ্যাপ স্টোরে হাজারো অ্যাপ্লিকেশন রয়েছে যেগুলো ব্যবহারকারীর অজান্তেই গোপনে বিজ্ঞাপন চালিয়ে যায়। এতে বিজ্ঞাপনদাতারা প্রতি বছরে সাড়ে ৮৯ কোটি মার্কিন ডলারের লোকসান দিচ্ছেন।

আক্রান্ত অ্যাপগুলো দেখতে নিরীহ সাধারণ অ্যাপের মতো মনে হলেও অ্যাপ্লিকেশন চালানো হলে এক মিনিটে ২০ টিরও বেশি বিজ্ঞাপন দেখায়। সাধারণত অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ্লিকেশনে ৩০ সেকেন্ড অন্তর বিজ্ঞাপন দেখায়। কিন্তু আক্রান্ত অ্যাপের মধ্যে লুকানো ব্রাউজার থাকে যা বিজ্ঞাপন প্রদর্শনের পাশাপাশি স্বয়ংক্রিয়ভাবে বিজ্ঞাপনে ক্লিকও করতে থাকে। অ্যাপ বন্ধ করা হলেও এই বিজ্ঞাপনগুলো ব্যাকগ্রাউন্ডে চলতে থাকে।

গবেষকেরা বলছেন, বিজ্ঞাপন প্রতারণামূলক অ্যাপ্লিকেশন এখন পর্যন্ত এক কোটি ২৯০ লাখ ডিভাইসে আক্রমণ করেছে যার বেশির ভাগই এশিয়াতে।

গবেষণায় জানা গেছে, এই বিজ্ঞাপনপূর্ণ অ্যাপগুলোর কারণে মোবাইল ব্যবহারকারীর নানা ক্ষতি হয়। দ্রুত ব্যাটারির চার্জ শেষ হয়ে যায়। এমনকি এক দিনে দুই গিগাবাইট ডেটা খরচ হয়ে যায়। গবেষকেরা আক্রান্ত অ্যাপগুলোর নাম প্রকাশ করেননি। অবশ্য ব্লুমবার্গের প্রতিবেদনে বলা হয়েছে— ওয়াক্সিং আইব্রো, সেলিব্রেটি বেবি ও ভ্যাম্পায়ার ডক্টরের মতো অ্যাপ্লিকেশনগুলো আক্রান্ত হতে পারে।

অ্যাপ্লিকেশন ইনস্টল করার জন্য সেটি কী ধরনের অনুমোদন চাচ্ছে সে বিষয়টি নিশ্চিত হয়ে তবে অ্যাপ ডাউনলোডের পরামর্শ দিয়েছেন গবেষকেরা। (ব্লুমবার্গ)

ঢাকা, শনিবার, জুলাই ২৫, ২০১৫ (বিডিলাইভ২৪) // আর কে এই লেখাটি ৬৯৬ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন