সর্বশেষ
বুধবার ৪ঠা আশ্বিন ১৪২৫ | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ভিম্পেলকমে নিজেদের অংশীদারিত্ব ছেড়ে দিচ্ছে টেলিনর

মঙ্গলবার, অক্টোবর ৬, ২০১৫

1672107137_1444107300.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
বিশ্বের অন্যতম শীর্ষ টেলিযোগাযোগ প্রতিষ্ঠান ভিম্পেলকমে থাকা নিজেদের ৩৩ শতাংশ শেয়ার বিক্রি করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে টেলিনর। গতকাল শেয়ার বিক্রির এ সিদ্ধান্ত ঘোষণা করে প্রতিষ্ঠানটি। বাংলাদেশের শীর্ষ সেলফোন অপারেটর গ্রামীণফোনের মূল প্রতিষ্ঠান নরওয়েভিত্তিক টেলিনর। আর বাংলালিংকের মূল প্রতিষ্ঠান আমস্টারডাম ভিত্তিক ভিম্পেলকম।

টেলিনরের পক্ষ থেকে গতকাল এক ঘোষণায় জানানো হয়, ভিম্পেল লিমিটেডে নিজেদের সব শেয়ার বিক্রি করতে আগ্রহী টেলিনরের বোর্ড। প্রতিষ্ঠানটির মূল কার্যক্রমে আরো গুরুত্ব দিতেই এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। ভিম্পেলকমে ১ হাজার ৫০০ কোটি নরওয়েজিয়ান ক্রোনার বিনিয়োগ রয়েছে টেলিনরের। এরই মধ্যে ২ হাজার কোটি নরওয়েজিয়ান ক্রোনার লভ্যাংশ হিসেবে পেয়েছে প্রতিষ্ঠানটি। ভিম্পেলকমে থাকা টেলিনরের ৩৩ শতাংশ শেয়ারের বর্তমান বাজারমূল্য ২ হাজার কোটি নরওয়েজিয়ান ক্রোনার বা ২৩০ কোটি ডলার।

শেয়ার বিক্রির সিদ্ধান্ত হলেও এজন্য কোনো সময় নির্ধারণ করা হয়নি। এ ধরনের প্রক্রিয়া সম্পন্ন হতে কিছুটা সময় লাগবে বলে ধারণা করছেন সংশ্লিষ্টরা। ভিম্পেলকমে থাকা প্রেফারড শেয়ার সাধারণ শেয়ারে পরিবর্তন করবে না বলেও জানিয়েছে টেলিনর।

এ প্রসঙ্গে টেলিনর গ্রুপের পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান এসভেইন আসার বলেন, ভিম্পেলকমে পূর্ণ নিয়ন্ত্রণ প্রতিষ্ঠার সম্ভাবনা না থাকায় প্রতিষ্ঠানটিতে টেলিনরের বিনিয়োগ চ্যালেঞ্জিং হয়ে দাঁড়িয়েছে। বোর্ড ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তার (সিইও) কৌশলগত পর্যালোচনা শেষে ভিম্পেলকমে থাকা সব শেয়ার বিক্রির সিদ্ধান্ত নিয়েছে টেলিনর। শেয়ারহোল্ডারদের স্বার্থ ও টেলিনরের দীর্ঘমেয়াদি কৌশলগত লক্ষ্য বিবেচনায় নিয়ে এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে।

প্রসঙ্গত, রাশিয়াভিত্তিক প্রতিষ্ঠান আলটিমোর মাধ্যমে ভিম্পেলকমের সিংহভাগ শেয়ারের সুবিধাভোগী মালিক বর্তমানে লেটারওয়ান হোল্ডিংস এসএ। লুক্সেমবার্গভিত্তিক এ প্রতিষ্ঠান পরোক্ষভাবে আলটিমোর সাধারণ শেয়ারের সুবিধাভোগী। টেলিনরের শেয়ারের বাইরে ভিম্পেলকমে লেটারওয়ানের ৫৬ দশমিক ২ শতাংশ ও ফ্রি ফ্লোট (লেনদেনযোগ্য) ১০ দশমিক ৮ শতাংশ শেয়ার রয়েছে।

গত আগস্টে টেলিনরের সিইও হিসেবে দায়িত্ব নেয়া সিগভে ব্রেক্কে জানান, নিয়ন্ত্রণে থাকা সব প্রতিষ্ঠানে ধারাবাহিক প্রবৃদ্ধি বজায় রেখেছে টেলিনর। বিশ্বের বিভিন্ন দেশে টেলিনরের প্রতিষ্ঠানগুলোয় সাফল্যের এ ধারা অব্যাহত রাখার ওপর গুরুত্ব দেয়া হচ্ছে। টেলিযোগাযোগ খাতে লাভজনক প্রবৃদ্ধির লক্ষ্য নিয়ে কার্যক্রম পরিচালনা করছে টেলিনর। এক্ষেত্রে ডাটাভিত্তিক সেবা সম্প্রসারণে বিনিয়োগের ধারাবাহিকতা রক্ষার বিষয়ে গুরুত্ব দেবে টেলিনর।

বিশ্বের নবম বৃহত্তম টেলিযোগাযোগ গ্রুপ ভিম্পেলকমের গ্রাহক সংখ্যা ২১ কোটি ৩৪ লাখের বেশি। এ প্রতিষ্ঠানে রয়েছেন ৬৬ হাজার কর্মী। ইউরোপ, উত্তর আমেরিকা, এশিয়া ও আফ্রিকার বিভিন্ন দেশে টেলিযোগাযোগ সেবা দিচ্ছে প্রতিষ্ঠানটি। মিসরীয় প্রতিষ্ঠান গ্লোবাল টেলিকম হোল্ডিংসের (জিটিএইচ)— আগে ওরাসকম টেলিকম হোল্ডিংস নামে পরিচিত ছিল— শতভাগ শেয়ারের মালিক হিসেবে বাংলাদেশের দ্বিতীয় শীর্ষ সেলফোন অপারেটর বাংলালিংকের মালিকানায় রয়েছে ভিম্পেলকম।

গ্রাহক সংখ্যার ভিত্তিতে দ্বাদশ শীর্ষ টেলিযোগাযোগ গ্রুপ টেলিনরের গ্রাহক সংখ্যা ১৮ কোটি ৯০ লাখ। নরওয়েভিত্তিক প্রতিষ্ঠানটির কর্মী সংখ্যা ৩৫ হাজারের বেশি। বিশ্বের ১২টি দেশে টেলিনরের নিজস্ব নেটওয়ার্ক রয়েছে। আর ভিম্পেলকমের মাধ্যমে পরিচালিত কার্যক্রম অন্তর্ভুক্ত হলে এ সংখ্যা দাঁড়ায় ২৯। টেলিনরের ৫৩ দশমিক ৯৭ শতাংশ শেয়ার নরওয়ে সরকার ও ৪ দশমিক ৭৯ শতাংশ দেশটির সরকারি পেনশন তহবিলের। বাকি ৪১ দশমিক ৭৪ শতাংশ শেয়ার পুঁজিবাজারে তালিকাভুক্ত। দেশের শীর্ষ সেলফোন অপারেটর গ্রামীণফোনের ৫৫ দশমিক ৮ শতাংশ শেয়ারের মালিক টেলিনর।

ভিম্পেলকমের কর্তৃত্ব নিয়ে শীর্ষ দুই শেয়ারহোল্ডার টেলিনর ও আলটিমোর মধ্যকার দ্বৈরথ দীর্ঘদিনের। ২০১২ সালের ফেব্রুয়ারিতে ভিম্পেলকমের আরেক শেয়ারহোল্ডার প্রতিষ্ঠান ওয়েদার টেলিকমের কাছ থেকে ৩৭ কোটি ৪০ লাখ ডলারের বিনিময়ে ১১ শতাংশ শেয়ার কিনে নেয় টেলিনর। এ সময় থেকে এর পাশাপাশি আরো কিছু শেয়ার কেনার মাধ্যমে টেলিনরের মোট শেয়ার দাঁড়ায় ৩৯ দশমিক ৫ শতাংশ। ফেব্রুয়ারিতে টেলিনরের কেনা শেয়ারের কারণে যে ভারসাম্যহীনতার সৃষ্টি হয়েছিল, সে সময়ই তার বিরোধিতা করে আলটিমো। প্রতিষ্ঠানটি টেলিনরের কাছে শেয়ার কেনারও প্রস্তাব দিয়েছিল। যদিও টেলিনর এ প্রস্তাবে সাড়া দেয়নি।

এদিকে ভিম্পেলকমে টেলিনরের শেয়ার বাড়ানোর ফলে বৈষম্যের অভিযোগ আনে রাশিয়ার অ্যান্টি-মনোপলি অথরিটি। বিনিয়োগ বিষয়ে রাশিয়ার একটি সুনির্দিষ্ট আইন লঙ্ঘনের অভিযোগ আনা হয় প্রতিষ্ঠানটির বিরুদ্ধে। এ আইন অনুযায়ী, প্রতিষ্ঠানে দেশী ও বিদেশী শেয়ারের পরিমাণে সমতা থাকতে হবে।

বর্তমানে ভিম্পেলকমের মোট ১৭৫ কোটি ৬৭ লাখ ৩১ হাজার ১৩৫টি সাধারণ শেয়ারের মধ্যে টেলিনরের শেয়ার সংখ্যা ৫৮ কোটি ৫ লাখ ৭৮ হাজার ৮৪০; যা মোট শেয়ারের ৩৩ শতাংশ। বাকি শেয়ারের মধ্যে আলটিমোর মাধ্যমে লেটারওয়ানের ৯৮ কোটি ৬৫ লাখ ৭২ হাজার ৫৬৩ ও ফ্রি ফ্লোট ১৮ কোটি ৯৫ লাখ ৭৯ হাজার ৭৩২টি।
তথ্যসূত্র: বণিক বার্তা

ঢাকা, মঙ্গলবার, অক্টোবর ৬, ২০১৫ (বিডিলাইভ২৪) // আর কে এই লেখাটি ৪১২ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন