সর্বশেষ
বুধবার ১৩ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ | ২৭ মে ২০২০

‘বিদ্যুৎ কেন্দ্রের পাশে স্থানান্তর হবে পোশাক কারখানা’

মঙ্গলবার, অক্টোবর ১৩, ২০১৫

1533813822_1444729450.jpg
বিডিলাইভ রিপোর্ট :
সরকার পোশাক খাতের কিছু বড় বড় কারখানা বিদ্যুৎ কেন্দ্রের পাশে স্থানান্তর করার চিন্তা করছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রীর জ্বালানি উপদেষ্টা ড. তৌফিক-ই-ইলাহী চৌধুরী।

পোশাক খাতে বিদ্যুৎ সরবরাহ নিশ্চিত করতেই সরকার এ স্থানান্তরের চিন্তা করছে। এতে কারখানাগুলো সরাসরি বিদ্যুৎ কেন্দ্রের বয়লার থেকে বিদ্যুৎ পাবে।

মঙ্গলবার রাজধানীর হোটেল রেডিসনে জ্বালানি ও বিদ্যুতের ওপর আয়োজিত ‘সেফ ফিউচার নাউ’ শীর্ষক সম্মেলনের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি একথা বলেছেন।

ঢাকা চেম্বার অব কমার্স অ্যান্ড ইন্ডাস্ট্রি (ডিসিসিআই) ও জার্মানের বহুজাতিক কোম্পানি টুব সুড যৌথভাবে সম্মেলনের আয়োজন করে।

আগামী ৫ বছরে বিদ্যুৎ উৎপাদন বর্তমান সময়ের চেয়ে দ্বিগুণ হবে জানিয়ে তৌফিক-ই-ইলাহী বলেন, সৌরবিদ্যুৎ ব্যবহারে দেশ অনেক এগিয়েছে। বাংলাদেশ এখন বিশ্বের বৃহৎ সৌরবিদ্যুৎ ব্যবহারের দেশ। বর্মতানে দেশে ৩২ লাখ  সৌর প্যালেন ব্যবহার করা হচ্ছে।

তিনি বলেন, শিল্প কারখানাকে বর্তমান সরকার সব সময় প্রাধান্য  দেয়। দেশের অর্থনৈতিক অগ্রগতির সঙ্গে জ্বালানি ও বিদ্যুৎ ওতপ্রোতোভাবে জড়িত। তাই আমাদের সরকার অঙ্গীকার করেছিল ২০২১ সালের মধ্যে সকলের জন্য বিদ্যুৎ নিশ্চিত করা হবে।

তবে আমরা আশা করছি ২০২১ সাল লাগবে না। ২০১৮-২০১৯ সালের মধ্যেই আমরা দেশের সব মানুষকে বিদ্যুৎ সুবিধার আওতায় আনতে পারব।

প্রধানমন্ত্রীর এই উপদেষ্টা বিদ্যুৎ সাশ্রয়ের আহ্বান জানিয়ে বলেন, শুধু বিদ্যুৎ উৎপাদন করলেই হবে না, বিদ্যুৎ ব্যবহারেও সতর্ক থাকতে হবে। এজন্য বিদ্যুৎ ব্যবহারে অভ্যাসগত পরিবর্তন আনা জরুরি। প্রয়োজন শেষে আমাদের ঘর, বাথরুমের লাইট বন্ধ রাখতে হবে।

অনুষ্ঠানে আরো উপস্থিত ছিলেন- বাংলাদেশে নিযুক্ত জার্মান রাষ্ট্রদূত ড. টমাস প্রিনজ, বিইআরসির চেয়ারম্যান এ আর খান প্রমুখ।

টুব সুড এর প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা (সিইও) নিরঞ্জন নাদকারিনি অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন।

 

ঢাকা, মঙ্গলবার, অক্টোবর ১৩, ২০১৫ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ১৮৩২ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন