সর্বশেষ
রবিবার ৮ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৮

নতুন কাপড়ে থাকতে পারে বিষ!

সোমবার, অক্টোবর ২৬, ২০১৫

1531443613_1445842343.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
কাপড় কারখানাজাতকরণে সময় মারাত্মক ক্ষতিকর বিষ ব্যবহার করা হয়। এই বিষাক্ত পদার্থ কাপড় কিনার পরও থাক। এমনকি ধোয়ার পরও এই ক্ষতিকর পর্দাথ কাপড় থেকে যায় বলে নতুন এক গবেষণায় দেখা গেছে।   

সম্প্রতি এক গবেষণায় জানা গেছে, কাপড় প্রস্তুতের বহুদিন পরেও তাতে থাকতে পারে বিষাক্ত পদার্থ। আর নতুন কাপড় কিনে পরলেই সেই বিষে আক্রান্ত হতে পারে মানুষ।

আন্তর্জাতিক ৬০টি গার্মেন্টস চেইনের পোশাক পরীক্ষা করে এ বিষের বিষয়টি নিশ্চিত হওয়া গেছে। গবেষণায় দেখা গেছে, কাপড়ে হাজারো ভিন্ন ধরনের রাসায়নিক পদার্থ ব্যবহৃত হয়। তার মধ্যে বেশ কয়েকটি মানবদেহের জন্য ক্ষতিকর।

এ বিষয়ে সুইডেনের স্টকহোম ইউনিভার্সিটির গবেষক গিওভানা লুওঙ্গো জানান, কাপড়ে ব্যবহৃত এসব বিপজ্জনক রাসায়নিক পদার্থের সংস্পর্শে অনেকেই অ্যালার্জিতে আক্রান্ত হন। তবে এ ধরনের কাপড় ব্যবহারে আরও কিছু মারাত্মক রোগের সম্ভাবনাও রয়েছে, যা জীবনহানী পর্যন্ত ঘটাতে পারে।

গবেষকরা কাপড়ে যেসব ক্ষতিকর উপাদান পেয়েছেন তার মধ্যে রয়েছে পলিস্টারে ব্যবহৃত কুইনোলাইন্স ও অ্যারোমেটিক অ্যামাইনস। এছাড়া কটন কাপড়ে পাওয়া গেছে বেনজোথিায়াজোলস-এর বিপজ্জনক মাত্রা। এমনকি অর্গানিক কটনেও এ উপাদানটি পাওয়া গেছে।

গবেষকরা কাপড়গুলো ধুয়ে তারপর তার কেমিক্যালের মাত্রা মেপে দেখেন। কিছু উপাদান কাপড় ধুলে বের হয়ে যায় কিন্তু তা পরিবেশের ক্ষতি করে।

গবেষক কনি ওস্টম্যান বলেন, আমরা এখন মূল বিষয়ের সামান্য অংশের অনুসন্ধানে রয়েছি, এ বিষয়ে আরো অনুসন্ধান করতে হবে। কাপড় মানুষ সারাজীবন সবসময় পরে। টেক্সটাইলের কেমিক্যাল আমাদের দেহের সংস্পর্শে কী কী ক্ষতি করে এবং স্বাস্থ্যের ওপর কী প্রভাব ফেলে, তা আমাদের বিস্তারিত অনুসন্ধান করতে হবে।

সূত্র: জি নিউজ



ঢাকা, সোমবার, অক্টোবর ২৬, ২০১৫ (বিডিলাইভ২৪) // টি এ এই লেখাটি ৯৮৯ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন