সর্বশেষ
মঙ্গলবার ২৯শে কার্তিক ১৪২৫ | ১৩ নভেম্বর ২০১৮

কাঁদলে বাড়ে আয়ু!

শনিবার, নভেম্বর ৭, ২০১৫

1285571734_1446876025.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
এতো দিন আমরা জেনে এসেছি, হাসলে আয়ু বাড়ে।

কিন্তু আপনি জানেন কি কাঁদলেও বাড়ে আয়ু? বিষয়টি একটু অবাক করার মতো হলেও সত্যি! এমনটিই বলছেন বিশেষজ্ঞরা।

তারা বলছেন,'কাঁদলে শুধু আয়ুই বাড়ে না। এর রয়েছে বহুবিধ উপকারিতা। কাঁদলে অনাহুত অতিথির মতো ঘাড়ে চেপে বসা অবসাদ দূর হয়। ফলে মন ঝরঝরে হয়ে যায়। আর নিয়মিত এই অভ্যাস গড়ে তুলত পারলে দৃষ্টিশক্তিও ভালো থাকে।'

এছাড়া কাঁদলে যেসব সুফল পাওয়া যায় তা আমরা এবার জেনে নিব।

১. সারাদিনের ধুলোবালি চোখের খুব ক্ষতি করে। চোখের জল সেগুলো চোখের বাহ্যিক তল থেকে ধুয়ে বের করে দেয়।

২. অশ্রু আইবল ও চোখের পাতা মসৃণ রাখে।

৩. চোখের মিউকাস মেমব্রেনের ডিহাইড্রেশন রোধ করে। এতে দৃষ্টিশক্তি প্রখর হয়।

৪. চোখের জলে অনেক বেশি মাত্রায় লাইসোজোম উপস্থিত, যা জীবাণুনাশক। লাইসোজোম মাত্র ১০ মিনিটের মধ্যেই চোখের ৯০ শতাংশ ব্যাকটেরিয়া মেরে ফেলে।

৫. কান্না অবসাদ থেকে মুক্তি দেয়। অবসাদের পাশাপাশি দেহে উৎপন্ন টক্সিনও কান্নার সঙ্গে বের হয়ে যায়।

৬. নেদারল্যান্ডসের সাম্প্রতিক এক গবেষণায় দেখা যায়, কাঁদলে 'ভালো লাগা'র উপাদান এন্ডরফিনস্? তৈরি হয়। অনুভূতি তরতাজা রাখতে যার জুড়ি মেলা ভার। এ ছাড়া কান্না নাকেরও উপকার করে। বেয়ে পড়া অশ্রু নাকের জীবাণু ধ্বংস করে। এমনিভাবে কান্না মানুষের আয়ু বাড়াতে ভূমিকা রাখে। হাফিংটন পোস্ট অনলাইন।

৭. কাঁদলে ‘ফিল গুড’ ফ্যাক্টর এন্ডরফিন্স তৈরি হয়। মন ফুরফুরা রাখতে এর জুরি মেলা ভার।

তাই এখন থেকে মন খারাপ হলেই কাঁদুন। অন্যের মন খারাপ হলে কাঁদার পরামর্শ দিন। দেখবেন সুস্থ আছেন।

ঢাকা, শনিবার, নভেম্বর ৭, ২০১৫ (বিডিলাইভ২৪) // ম পা এই লেখাটি ১০৮৫ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন