সর্বশেষ
বৃহঃস্পতিবার ৫ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ইরানে প্রথম নারী রাষ্ট্রদূত

সোমবার, নভেম্বর ৯, ২০১৫

1725527293_1447061477.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
১৯৭৯ সালে ইরানে ইসলামিক গণজাগরন ঘটার পর কেটে গেছে স্বাধীনতার ৩২টি বছর। এতো দীর্ঘ সময়ের পর ইরানে প্রথমবারের মতো কোনো নারীকে রাষ্ট্রদূত হিসেবে নিযুক্ত করা হয়েছে।

রোববার মালয়েশিয়ায় ইরানি দূতাবাসের জন্য রাষ্ট্রদূত হিসেবে মারজিয়ে আকহামের নাম ঘোষণা করেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী জাভেদ জারিফ।

তেহরানে কর্মজীবনের ৫০ বছর পূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ইরানের পরারাষ্ট্রমন্ত্রী মোহাম্মদ জাভেদ জারিফ বলেন, রাষ্ট্রদূত হিসেবে আকহামের নাম ঘোষণা করতে ৪ মিনিট সময় লাগলেও এই পদের জন্য তার যোগ্যতা ও পূর্বের সফলতা বিচার করতে সময় লেগেছে ৪ মাস।

ইরানে প্রথমবারের মতো কোনো নারীকে রাষ্ট্রদূত হিসেবে নিযুক্ত করার কথা এপ্রিল মাস থেকে শোনা গেলেও সেই বিষয়ে কেউ নিশ্চিত ছিলো না।

মারজিয়ে আকহামকে সম্মান প্রদর্শন করে জারিফ বলেন, আকহাম গত দুই বছর ধরে তার সব দায়িত্ব নিষ্ঠা, সততা ও সাহসিকতার সঙ্গে পালন করে আসছে।

রাষ্ট্রের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে নারীদের নিয়োগ দেয়ার জন্য ইরানের প্রেসিডেন্ট হাসান রুহানি তার মন্ত্রীসভার সদস্যদের নির্দেশ দেন।

ইরানের ১১তম উপ রাষ্ট্রপতি হিসেবে ৩ জন নারীর নাম ঘোষণা করে প্রেসিডেন্ট রুহানি বলেন, তার সরকার লিঙ্গ বৈষম্যের বিরুদ্ধে কাজ করে যাবে।

তবে সংসদ ও কেবিনেটসহ রাষ্ট্রের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে নারীদের নিয়োগ দেয়া হলেও আরব রাষ্ট্রগুলোতে এখনো নারীদের বিচারপতি বা রাষ্ট্রপতি হিসেবে নিয়োগ করা হয় না।

ঢাকা, সোমবার, নভেম্বর ৯, ২০১৫ (বিডিলাইভ২৪) // টি এ এই লেখাটি ৬২৪ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন