সর্বশেষ
বুধবার ৪ঠা আশ্বিন ১৪২৫ | ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৮

ভিক্টোরিয়ানসের সিদ্ধান্তে বিরল সম্মান পেলেন মাশরাফি

শুক্রবার, ডিসেম্বর ৪, ২০১৫

1652183622_1449221680.jpg
বিডিলাইভ রিপোর্ট :
ক্রিকেট বিশ্ব ইমরান খানের চেয়ে ভালো বোলার দেখেছে। ভালো ব্যাটসম্যানতো বহুই দেখেছে। তবে অধিনায়ক ইমরান খান সর্বযুগের অন্যতম সেরা। এক নম্বর তা হলফ করে বলা যায় না। তবে ব্যাটিং, বোলিং আর অধিনায়কত্ব এ তিনে মিলে ইমরান যে প্যাকেজ ছিলেন, পৃথিবী নামক গ্রহে এমন আর একজনেরও দেখা মিলে না।

তুলনাটা হয়তো এখনই বাড়াবাড়ি দেখাতে পারে। তবে পাকিস্তান ক্রিকেটের জন্য ইমরান খান যা, বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য মাশরাফিও তাই। গত এক বছর ধরে বদলে যাওয়া বাংলাদেশ ক্রিকেটের মূল নায়ক মাশরাফি। যার পুরো ক্রিকেট ক্যারিয়ারটাই সংগ্রামমুখর। রূপকথার মতো অভিষেক হয়েছিল মাশরাফির। বাংলাদেশ ক্রিকেট ইতিহাসের প্রথম বোলার যিনি প্রতিপক্ষ শিবিরে আতঙ্ক তৈরি করেছিলেন। তারপর বারবার তাকে যেতে হয়েছে শল্য চিকিৎসকের কাছে। একের পর এক ইনজুরি। একের পর এক অস্ত্রপচার। আবার ফিরে আসা। অদম্য এক বীরের গল্প। ব্যাটিংটা অল্প-স্বল্প পারেন। মূলত বোলার। তবে অধিনায়ক মাশরাফি ছাপিয়ে গেছেন অন্য সব পরিচয়।

এবার বিপিএলে কুমিল্লা দলটি অন্যান্য দলের তুলনায় ছিল হতশ্রী। শুরুতে তেমন তারকা সমাবেশ ছিল না। কিন্তু মাশরাফিতো ছিলেন, আছেন। পুরো দলটিকে বাঁধলেন এক সুতোয়। অবাক করা হলেও সত্য, ব্যাট হাতে কুমিল্লাকে জেতালেন একাধিক ম্যাচ। তবে গতকালের ম্যাচে যে রেকর্ড গড়লেন মাশরাফি তা অনন্য। ব্যাটসম্যান বা বোলার হিসেবে নয়, অধিনায়ক হিসেবে চট্টগ্রামের বিপক্ষে খেললেন তিনি। কে জানে পৃথিবীর ইতিহাসেই এমন ঘটনা প্রথম কি-না। যদিও মাশরাফির আসলে আগের ম্যাচটিও শুধু অধিনায়ক হিসেবে খেলার কথা ছিল। ওই ম্যাচের আগে কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ানসের উপদেষ্টা আ হ ম মুস্তফা কামাল তাকে বলেছিলেন, তুমি শুধু অধিনায়কত্ব করার জন্য খেলো। বোলিং করা লাগবে না।

তবে শুধু অধিনায়ক হিসেবেও সফল মাশরাফি। মাঠে তার উপস্থিতিই এখন এক বিরাট প্রেরণা।

ঢাকা, শুক্রবার, ডিসেম্বর ৪, ২০১৫ (বিডিলাইভ২৪) // এম এস এই লেখাটি ৫৬১৩ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন