সর্বশেষ
বৃহঃস্পতিবার ৫ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২০ সেপ্টেম্বর ২০১৮

শত নারীযোদ্ধাকে জবরদস্তি করে গর্ভপাতকারী গ্রেফতার

রবিবার, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৫

1423292393_1449997832.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
‘নারীরা হয় যুদ্ধ করবে, নয়তো পুরুষের সেবা করবে’ এমন মন্ত্রে বিশ্বাসী হয়েই কলম্বিয়ায় শতাধিক ফার্ক নারীযোদ্ধাকে জোর করে গর্ভপাত করাতেন এক সেবক। তাই জবরদস্তি করে গর্ভপাত করানোর অভিযোগে তাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

রোববার বিবিসি এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে, স্পেন থেকে ওই ব্যক্তিকে গ্রেফতার করা হয়েছে।

স্পেনের হাসপাতালের হেক্টর রবলেদা আলবেইদিস বুইত্রাগো নামের ওই ব্যক্তি দেশটির মাদ্রিদের একটি হাসপাতালে সেবক হিসেবে চাকরি করতেন। কলম্বিয়া সরকার বহুদিন ধরেই তাকে গ্রেফতারের চেষ্টা করছিল।

শুক্রবার কলম্বিয়া সরকার জানিয়েছিল, ফার্কের কমপক্ষে দেড় শ প্রাক্তন নারীযোদ্ধা অভিযোগ করেছেন, তাদের জোর করে গর্ভপাত করানো হতো। এসব অভিযোগ তারা খতিয়ে দেখছেন। আলবেইদিস বুইত্রাগোই এদের অধিকাংশের গর্ভপাত ঘটিয়েছিলেন। এর কারণে তিনি ফার্ক যোদ্ধাদের কাছে ‘দ্য নার্স’ নামে পরিচিত ছিলেন।

কলম্বিয়ার অ্যাটর্নি জেনারেল এদুয়ার্দো মন্টিয়ালার্জ শুক্রবার সাংবাদিকদের জানিয়েছেন, নারীযোদ্ধাদের যাতে যুদ্ধ করার সক্ষমতা কমে না যায়, সে জন্য তাদের গর্ভপাত করানো হতো।

তিনি বলেন, ‘যুদ্ধের অস্ত্র হিসেবে নারীদের যাতে হারাতে না হয়, সে জন্য গর্ভপাত বিষয়টি ফার্কের যে একটি নীতি ছিল, সে বিষয়ে আমাদের হাতে প্রমাণ রয়েছে।’

বামপন্থি এই বিদ্রোহী গোষ্ঠীটি অবশ্য এর আগে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে আসছিল। দল থেকে বেরিয়ে আসা এক প্রাক্তন নারীযোদ্ধা বিবিসিকে জানিয়েছেন, তাকে পাঁচবার গর্ভপাতে বাধ্য করা হয়েছিল। নারীরা হয় যুদ্ধ করবে, নয়তো পুরুষের সেবা করবে, এটাই ছিল দলের প্রত্যাশা। যাদেরকে সন্তান জন্ম দেওয়ার সুযোগ দেওয়া হতো তারা নিজেদেরকে ভাগ্যবান মনে করত।


ঢাকা, রবিবার, ডিসেম্বর ১৩, ২০১৫ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ২২২৮ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন