সর্বশেষ
মঙ্গলবার ৩রা আশ্বিন ১৪২৫ | ১৮ সেপ্টেম্বর ২০১৮

বিধবার প্রতি এ কেমন আচরণ!

শনিবার, ডিসেম্বর ১৯, ২০১৫

903301037_1450532232.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
পাটনা থেকে ২০০ কিলোমিটার দূরে কল্যাণপুর গ্রামে একটি সরকারি মাধ্যমিক স্কুল অবস্থিত। স্কুলে প্রথম শ্রেণি থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত ৭৩৪ জন শিক্ষার্থী রয়েছে। এখানে শিক্ষার্থীদের দুপুরের খাবার রান্নার দায়িত্বে নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এক নারীসহ পাঁচজন পাচক রয়েছেন। কয়েক সপ্তাহ আগে তাকে পাচকের দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেয় গ্রামবাসী। এর কারণ হিসেবে বলা হয়, তিনি বিধবা।

কেবল বিধবা হওয়ার কারণেই ওই নারীকে সরকারি মাধ্যমিক স্কুলের শিক্ষার্থীদের পাচকের দায়িত্ব থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে।

সম্প্রতি বিহার রাজ্যের গোপালগঞ্জ জেলার কল্যাণপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

এ ঘটনার পর দুই সন্তানের জননী ওই নারী চাকরি ফিরে পেতে জেলা প্রশাসকের দ্বারস্থ হন। দরিদ্র ওই নারী পাচকের দায়িত্ব পালনের বিনিময়ে স্কুলটি থেকে মাসিক ১ হাজার রুপি বেতন পেতেন।

ওই নারীকে বাদ দিয়েই ক্ষান্ত হয়নি গ্রামবাসী। তারা গত বুধবার ওই স্কুলটিও বন্ধ করে দিতে চাপ প্রয়োগ করে। পরে জেলা প্রশাসন কর্তৃপক্ষের হস্তক্ষেপে গ্রামবাসী তাদের আন্দোলন থেকে সরে আসে। এ ঘটনার পর স্কুল কর্তৃপক্ষ ওই নারীকে পুনর্নিয়োগ দিয়েছে।

গ্রামবাসীদের সম্প্রীতি বোঝাতে গোপালগঞ্জ জেলা প্রশাসক রাহুল কুমার স্কুলের শিক্ষার্থীদের সঙ্গে মাটিতে বসে ওই নারীর রান্না করা দুপুরের খাবারও খেয়েছেন।

রাহুল বলেন, ‘আমি জেলা শিক্ষা কর্মকর্তার সঙ্গে স্কুলটি পরিদর্শন করেছি এবং শিক্ষার্থীদের রান্নার দায়িত্বে থাকা ওই নারীর তৈরি করা দুপুরের খাবার খেয়েছি।’ সূত্র: এনডিটিভি

ঢাকা, শনিবার, ডিসেম্বর ১৯, ২০১৫ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ৭৭৯ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন