সর্বশেষ
রবিবার ৪ঠা অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ১৮ নভেম্বর ২০১৮

লাইভে ধারণকৃত বিশ্বের ৬ উত্তেজনাকর ঘটনা (ভিডিও)

মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ২২, ২০১৫

3694863_1450722320.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
বিগত বছরগুলোতে অনেক উত্তেজনাকর ঘটনা ঘটে গেছে যেগুলো মানুষকে বেদনা দেয়। বিশ্বে ঘটে যাওয়া এরকম পাঁচটি বড় ঘটনা, দুর্ঘটনা, বিপ্লব ও দুর্যোগের ধারাবাহিক লাইভ ভিডিও

১. তোহোকু ভূমিকম্প

জাপানে ছয় মিনিটের তোহোকু ভূমিকম্পের ধ্বংসযজ্ঞ মাথাচাড়া দিয়ে উঠেছিল ২০১১ সালের মার্চে। তোহোকুর ওশিকা পেনিনসুলা উপকূল থেকে ৪০ মাইল দূরে এ দুর্যোগ দেখা দেয়। আধুনিক পৃথিবীর ইতিহাসে এটি একটি বড় ভূমিকম্প। ৯.০ মাত্রার ভূমিকম্পটি ডেকে এনেছিল একশ’ ফুট উচ্চতার সুনামি ঢেউ আর ধারাবাহিক দুর্যোগ। এই দুর্যোগে জাপানে প্রাণ হারায় ১৬ হাজার, ছয় হাজারেরও বেশি আহত হয় ও আড়াই হাজারের মতো নিখোঁজ হয়।

ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন

২. লস অ্যাঞ্জেলস দাঙ্গা

১৯৯২ সালের লস অ্যাঞ্জেলস বিদ্রোহ বা রডনি কিং দাঙ্গা যুক্তরাষ্ট্রের সবচেয়ে বড় দাঙ্গা হিসেবে বিবেচিত। স্থানীয় পুলিশ বিভাগ নৃশংসভাবে রডনি কিংকে মারধর করায় দাঙ্গার সূত্রপাত ঘটে। আফ্রিকান-আমেরিকানরা রাজপথে জ্বালাও-পোড়াও কর্মসূচী, দাঙ্গা ও লুটপাট চালায়। সর্বমোট ছয়দিনের দাঙ্গায় ৫০ জনের বেশি মারা যায়, দুই হাজারেরও বেশি আহত হয়। নষ্ট হয় প্রায় এক বিলিয়ন ডলারের মতো সম্পদ। গ্রেফতার হয় প্রায় এগার হাজার দাঙ্গাকারী। পুলিশ পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে বেসামল হয়ে পড়ে। অন্যদিকে দাঙ্গাকারীরাও ছেড়ে দিতে নারাজ ছিল।

ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন


৩. বার্লিন প্রাচীর পতন

‘বাধ ভেঙে দাও, এটা মুক্তির রাত।’ ১৯৮০ সালের শেষের দিকে পূর্ব ও পশ্চিম জামার্নির মধ্যকার সম্পর্কের উন্নতি ঘটতে থাকে। দীর্ঘ ২৮ বছর পর ১৯৮৯ সালে বিভক্তকারী দেয়াল নামিয়ে নেওয়া হয়। প্রায় তিন দশক ঠাঁয় দাঁড়িয়ে থাকার পর বার্লিন দেয়ালের পতনের দিনটি ছিল ঐতিহাসিক।

ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন

৪. ম্যানিলা হোস্টেজ ক্রাইসিস

অসন্তুষ্ট কর্মচারী রোলান্ডো মেন্ডোজা ২০১০ সালের ২৩ আগস্ট ফিলিপাইনের ম্যানিলায় একটি টুরিস্ট বাস হাইজ্যাক করেন। ফিলিপাইন ন্যাশনাল পুলিশে অফিসার হিসেবে চাকরি হারানোর পর হতাশ হয়ে এ কাজ করেন তিনি। রিজেল পার্ক নামের বাসটি ২৫ জন যাত্রীসহ হাইজ্যাক করেন। জাতীয় টেলিভিশন ও ইন্টারনেটে ব্যাপকভাবে এই ঘটনার প্রচার হয়।

ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন

৫. মিউনিখ অলিম্পিকস হোস্টেজ সিচুয়েশন

ব্ল্যাক সেপ্টেম্বর নামে একদল ফিলিস্তিনির সন্ত্রাসী-কর্মকাণ্ডে মিউনিখে ১৯৭২-এর সামার অলিম্পিক স্থগিত হয়েছিল। দলটি ১১ জন ইসরায়েলি অলিম্পিক টিম সদস্য ও একজন জার্মান পুলিশ অফিসারকে বন্দি করে। পরে তাদের সবাইকেই হত্যা করা হয়। ২০ ঘণ্টা অচলাবস্থার পর ইসরায়েল-ফিলিস্তিনি দ্বন্দ্বের বিচার ও ইসরায়েলে বন্দি ২৩৪ জন ফিলিস্তিনির মুক্তি চায় ব্ল্যাক সেপ্টেম্বর। কিন্তু তাদের এ দাবির পরিপ্রেক্ষিতে চলমান আলোচনা ভেঙে পড়েলে উদ্ধার অভিযান শুরু হয়। এতে ব্ল্যাক সেপ্টেম্বরের আট সদস্যের পাঁচজনই নিহত হয়। এ ঘটনায় মোট ১৭ জন নিহত হন। নিহতদের সম্মানে আধুনিক ইতিহাসে প্রথমবারের মতো সেবার সংক্ষিপ্ত পরিসরে অলিম্পিক স্থগিত করা হয়।

ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন

৬. সেপ্টেম্বর ১১, ২০১১
দিনটির কথা কম বেশি সবার মনে আছে। ২০০১ এর ১১ সেপ্টেম্বর সকালে দ্বিতীয় প্লেনটি ওয়ার্ল্ড ট্রেড সেন্টারের দক্ষিণ টাওয়ারে আঘাত করে। এর আগেই উত্তর টাওয়ারে আক্রমণ করা হয়। সন্ত্রাসী হামলায় প্রায় তিন হাজার মার্কিনি প্রাণ হারায়। এই নারকীয়তা মধ্যপ্রাচ্যের সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের যুদ্ধের পরিসীমাকে আরো বাড়িয়ে দেয়।

ভিডিও দেখতে এখানে ক্লিক করুন

ঢাকা, মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ২২, ২০১৫ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ৪০৭০ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন