সর্বশেষ
মঙ্গলবার ১০ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২৫ সেপ্টেম্বর ২০১৮

যৌন অপরাধ দমনে ‘কুকুর’

শুক্রবার, ডিসেম্বর ২৫, ২০১৫

499503200_1451033305.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
শিশু যৌন নিপীড়কদের আটকে বিশেষ প্রশিক্ষিত কুকুর ব্যবহারের চিন্তাভাবনা করছেন মার্কিন পুলিশ বিভাগ। যৌন অপরাধের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে এটা নতুন একটি পদ্ধতি বলে জানিয়েছেন তারা। এই বিশেষ প্রশিক্ষিত কুকুরের নাম দেওয়া হয়েছে ‘পর্নো কুকুর’।

টেক্সাসের মন্টোগোমিরি কাউন্টির ক্রাইম স্টপারস ইউনিট ১৭ হাজার ডলারের একটি প্রকল্পের আওতায় বেশ কয়েকটি বিশেষ কুকুরকে প্রশিক্ষণ দিচ্ছে। শিশুদের যৌন নিপীড়নের যেসব ছবি নিপীড়করা হার্ডডিস্ক, মেমরি ড্রাইভসহ যেসব ইলেকট্রনিক্স ডিভাইসে লুকিয়ে রাখে, এসব কুকুর গন্ধ শুঁকে সেসব ডিভাইস খুঁজে বের করতে সক্ষম।

গত নভেম্বরে শিশু যৌন নিপীড়নের অভিযোগে জেরড ফগলি নামে এক ব্যক্তিকে কারাদণ্ড দিয়েছিল আদালত। ফগলি যৌন নিপীড়নের যেসব ছবি লুকিয়ে রেখেছিলেন সেগুলি এসব প্রশিক্ষিত কুকুরই খুঁজে বের করেছিল। তাই কর্মকর্তারা আশাবাদী এসব কুকুরকে ভবিষ্যতে এ ধরনের অভিযানে ব্যবহার করা যাবে।

মন্টোগোমিরি কাউন্টির ক্রাইম স্টপারস ইউনিটের সদস্য জন দুই মাস কুকুরদের এ ধরনের কাজে ব্যবহার করার পদ্ধতিকে উদ্ভাবনী প্রক্রিয়া বলে মন্তব্য করেছেন।

তিনি বলেন, ‘এটা ব্যাপক আকর্ষনীয় ও উপযুক্ত। কারণ এটা হচ্ছে এমন পদ্ধতি যাতে আমাদের শিশু পর্নোগ্রাফারদের ধরতে সাহায্য করবে।’

কর্মকর্তারা জানিয়েছেন, শিগগিরই টেক্সাসের পুলিশ ইউনিটে ব্রডি নামে একটি চকলেট রঙের ল্যাবরাডার যোগ দিতে যাচ্ছে। এই কুকুরটি মাধ্যমে আরো সন্দেহভাজন অপরাধীদের আটক করা সম্ভব হবে।

ঢাকা, শুক্রবার, ডিসেম্বর ২৫, ২০১৫ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ৪৮৮ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন