সর্বশেষ
বুধবার ১১ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২৬ সেপ্টেম্বর ২০১৮

মাত্র ৬০ টাকায় ক্যানসারের চিকিৎসা!

শুক্রবার, ডিসেম্বর ২৫, ২০১৫

1624959915_1451045840.png
বিডিলাইভ ডেস্ক :
মরণ ক্যানসারে যারা বাকশক্তি হারিয়ে মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছেন, তারা ঠিক আগের মতোই কথা বলতে পারবেন! না, কোনও আকাশকুসুম কল্পনা নয়। বামুন হয়ে চাঁদে হাত বাড়ানোর মতো অসাধ্যসাধনও নয়। হ্যাঁ বাস্তব।

এ জন্য অনেক টাকা লাগবে, তা-ও নয়। লাগবে না কোনও কৃত্রিম বক্সও। স্রেফ একটা ডিভাইস, যার দৌলতে বাকশক্তি হারানো ব্যক্তি মুখের ভাষা ফিরে পাবেন। ডিভাইসটির ওজন, সর্বসাকুল্যে ২৫ গ্রাম। খরচ মাত্র ৫০ রুপি! বাংলাদেশি টাকায় এর মূল্য ৬০ টাকা। ফলে, গরিব মানুষেরও সাধ্যের মধ্যে এই ডিভাইস।

হাজার হাজার গলার ক্যানসার আক্রান্ত রোগীকে যিনি এই আশার আলো দেখিয়েছেন, তার নাম ডা. বিশাল রাও। বেঙ্গালুরুর নামী ক্যানসার বিশেষজ্ঞ।

ডাক্তার রাওয়ের বলেন,  ‘‘কথা বলতে পারাটাও তো অধিকার। কিন্তু, গলার ক্যানসারে আক্রান্তদের ভয়েস বক্স সার্জারি করে বাদ যাওয়ার পর, তারা তো আর কথা বলতে পারেন না। অসুখের কারণেরও তাদের যেটা ভিতরে ভিতরে ভেঙে চৌচির করে দেয়, তা হলো চিরদিনের মতো বাকশক্তি হারিয়ে ফেলা। তাই এদের জন্য কিছু যদি করতে পারি, সেই চেষ্টাতেই ছিলাম।’’

এখন বাজারে কৃত্রিম অঙ্গ (ভয়েস বক্স) পাওয়া যায়, যা দিয়ে কথা বলা যায়। কিন্তু, সেটা সবার সাধ্যের মধ্যে নয়। দাম ২০ হাজার। কিন্তু, ছয় মাস পর পর সেই প্রস্থেসিস পালটাতে হয়। সেখানে এই ভারতীয় গবেষকের তৈরি ডিভাইসের দাম মাত্র ৫০ টাকা!

HCG ক্যানসার কেয়ারের সার্জন ডাক্তার বিশাল বলেন, ‘‘আমি এমন একটা কিছু করতে চাইছিলাম, যা সবার সাধ্যের মধ্যে থাকে। আবার একইসঙ্গে রোগী স্বাভাবিক কথাও বলতে পারেন। সেদিক থেকে আমার এই ডিভাইস সফল।’’

এই ডিভাইসটির নাম দেওয়া হয়েছে Aum voice prosthesis। তিনি জানান, শশাঙ্ক মহেশ নামে তার এক শিল্পপতি বন্ধুর কাছ থেকে গবেষণার প্রয়োজনে আর্থিক সাহায্য নিয়েছেন। সূত্র: এই সময়।


ঢাকা, শুক্রবার, ডিসেম্বর ২৫, ২০১৫ (বিডিলাইভ২৪) // এস আর এই লেখাটি ২২২৩ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন