সর্বশেষ
শনিবার ৭ই আশ্বিন ১৪২৫ | ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮

‘আমি এসব অভিযোগকে পাত্তাই দেই না’

মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ২৯, ২০১৫

1079540111_1451382808.jpg
বিনোদন রিপোর্ট :
যথেষ্ট সম্ভাবনা ও গ্ল্যামারাস লুক থাকা সত্ত্বেও এগুতে পারছেন না নায়িকা মৌমিতা মৌ। নিজের খাম-খেয়ালীপনা আর নতুন নায়ক ও পরিচালকের প্রেমে পড়ে যাওয়া তার স্বভাবে পরিণত হয়েছে। তাকে সময়মতো ডাকলে পান না পরিচালকরা। বিভিন্ন অজুহাত দেখিয়ে তিনি প্রায় অদৃশ্য হয়ে থাকেন। সেলফোনটিও বন্ধ রাখেন। এমনই অভিযোগ তুলেছেন কয়েকজন পরিচালক। তার এমন আচার-আচরণে তাই অনেকেই ক্ষুব্ধ।

জানা গেছে, অভিনয়ের সক্ষমতা না মেপেই তিনি তার সম্মানীর দিকে বেশি মনোযোগি। নতুন কোনো ছবির অফার আসলেই তিনি মোটা অংকের পারিশ্রমিক হাঁকেন। আর এসব কারণে নির্মাতারা তার কাছ থেকে মুখ ফিরিয়ে নিচ্ছেন। তিনিও তার সমসাময়িক নায়িকাদের চেয়ে পিছিয়ে পড়ছেন। প্রায় একই সময়ে চলচ্চিত্রে আসা মাহি, ববি, আঁচল, পরীমনিরা বর্তমান সময়ের চলচ্চিত্রে এক রকম নেতৃত্ব দিলেও সে কাতারে নেই মৌমিতা। আর তাই নির্মাতাদের কাস্টিং লিস্টের একেবারে শেষ কাতারে তার নাম। কারো সিডিউল না পেলে তবেই মৌমিতার খোঁজ করা হয়। তখনই তিনি হাঁকেন অযৌক্তিক পারিশ্রমিক।

এদিকে সেলফোন বন্ধ রেখে গা ঢাকা দেওয়াও তার নিয়মিকত অভ্যাসে পরিণত হয়েছে। এইতো কয়দিন আগে পরিচালক সায়মন তারিক তার ‘মাটির পরী’ ছবির প্রচারণার জন্য মৌমিতাকে খুঁজতে গিয়ে হয়রানির শিকার হন। ১ জানুয়ারি ছবিটির মুক্তি উপলক্ষে বিভিন্ন প্রেক্ষাগৃহে মৌমিতাকে নিয়ে যাওয়ার পরিকল্পনা ছিল তার। তিনি মৌমিতার সন্ধান পান এর দু'দিন পর। অজুহাত হিসাবে মৌমিতা তার বাবার অসুস্থতাকে হাজির করেন। এ নিয়ে সায়মন তারিকও ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন।

এসব বিষয়ের সত্যতা জানতে চাইলে মৌমিতা বিডিলাইভকে বলেন, ‘আমি এসব অভিযোগকে পাত্তাই দেই না। এসবের কোনোটাই সত্য নয়, আমার সেলফোন সবসময়ই খোলা থাকে। কখনোই আমি এটা বন্ধ রাখি না। যারা আমার ব্যাপারে অভিযোগ তোলে তারা আমার ভালো চায় না বলেই এসব বলে থাকে। আমি তো আমার মুক্তিপ্রতীক্ষিত ছবি ‘মাটির পরী’র প্রচারণা নিয়ে পরিচালক সায়মন তারিক ভাইয়ের সঙ্গে যুক্ত আছি এবং আমরা বিভিন্ন সিনেমা হলে গিয়ে দর্শকের সাথে ছবিটি দেখবো।’

উল্লেখ্য, মৌমিতা মৌ’র চলচ্চিত্রে আগমণ ২০১৩ সালে কালাম কায়সার পরিচালিত ‘তোমার আছি তোমারই থাকব’ ছবির মাধ্যমে। তার অভিনীত দ্বিতীয় ছবি রাজু চৌধুরী পরিচালিত ‘তুই শুধু আমার’। তৃতীয় ছবি সায়মন তারিক পরিচালিত ‘মাটির পরী’ মুক্তি পেতে যাচ্ছে ১ জানুয়ারি। চুক্তিবদ্ধ হয়ে আছেন এসএ হক অলীকের ‘আরো ভালোবাসবো তোমায়’, হানিফ মাহমুদের ‘ফেরারী’ ও ফিরোজ খান প্রিন্সের ‘খান ভাই’ ছবিতে।

বোদ্ধারা বলছেন, মৌমিতা তার আচরণগত পরিবর্তন না ঘটালে হাতে থাকা ছবিগুলো থেকে ছিটকে পড়তে পারেন। শুধু তাই নয়, চলচ্চিত্র সংশ্লিষ্টরা মনে করেন মৌমিতাকে তার নিজের স্বার্থেই খামখেয়ালিপনা ছেড়ে অভিনয়ে মনোযোগি হতে হবে। তা না হলে অনেকের মতো তার ক্যারিয়ারেও সংকট আসন্ন। কারণ অতীতে এসব করে অসংখ্য নায়ক-নায়িকার ক্যারিয়ার অঙ্কুরেই বিনষ্ট হয়ে রুপালি পর্দা থেকে বিদায় নিতে হয়েছে।


ঢাকা, মঙ্গলবার, ডিসেম্বর ২৯, ২০১৫ (বিডিলাইভ২৪) // আর কে এই লেখাটি ২২৬৩ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন