সর্বশেষ
শনিবার ১লা পৌষ ১৪২৫ | ১৫ ডিসেম্বর ২০১৮

বিজ্ঞানের চোখে ‘ভালোবাসা’

বৃহস্পতিবার, জুলাই ২৮, ২০১৬

1408453938_1469702747.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :
কাউকে দেখে মনের মধ্যে অনিয়ন্ত্রিত কিছু আবেগ চলে আসলে বুঝবেন আপনি প্রেমে পড়েছেন। যে কেউ যেকোন সময়েই প্রেমে পড়তে পারেন। তবে প্রেমে পড়া যতটা সহজ, এ পথ থেকে ফিরে আসাটা কিন্তু ততটাই কঠিন। এর জন্য মানুষ নানা কষ্ট হাসিমুখে বরণ করেন। কেউ কেউ আবার নিজের জীবনটা উৎসর্গ করতেও দ্বিধা করেন না। এ কারণেই ভালোবাসাকে মাদকের সঙ্গে তুলনা করেছেন বিজ্ঞানীরা।

এখন প্রশ্ন হল- ভালোবাসা ভালো নাকি খারাপ। এর উত্তর এবার বিজ্ঞানীরা দিয়েছেন। তারা বলছেন, এটি সাধারণত নির্ভর করে আপনি যাকে ভালোবেসেছেন সে কেমন তার উপর। ভালো সম্পর্ক আপনার জীবনকে সাফল্যের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেয়। আর খারাপ সম্পর্ক আপনার জীবনটা ছারখার করে দেয়। কাজেই যে কোন সম্পর্কের আগে আপনার ভালোবাসার মানুষটি সম্পর্কে আগে জানুন।

বিজ্ঞানীরা বলেছেন, যদি আপনি সঠিক মানুষকে ভালোবেসে থাকেন তাহলে এই সম্পর্কটি হবে আপনার জীবনের টার্নিং পয়েন্ট। আর এ কারণেই এটা মাদকের মতোই।

এবার বিজ্ঞানীদের দৃষ্টিতে জেনে নিন ভালোবাসার নানা ব্যাখ্যা-

ব্যাখ্যা-১
মানুষ যখন প্রেমে পড়ে তখন সে আর যুক্তি দিয়ে কোন কিছু বিচার করতে চায় না। কেবল আবেগ দিয়েই সবকিছু যাচাই করতে চায়। এ কারণে গবেষকরা বলেন, ভালোবাসা অন্ধ।

ব্যাখ্যা-২
যারা গভীর প্রেমে পড়েন গবেষকরা তাদের মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা পর্যবেক্ষণ করেন। এতে তারা দেখতে পান, ভালোবাসা মানুষের মধ্যে এক সুখের অনূভূতি নিয়ে আসে। কিন্তু সিঙ্গেল কারও ক্ষেত্রেই এমন অনুভূতি আসে না। তাই বিজ্ঞানীদের ভাষায়, ভালোবাসার সকল সুখের উৎস।

ব্যাখ্যা-৩
বিজ্ঞানীরা বলেছেন, মানুষ প্রেমে পড়লে তাদের মস্তিষ্কের সামনের কর্টেস্কের কোষগুলো ভালোভাবে কাজ করে। ফলে সহজেই সে যে কোন কিছু চিন্তা করতে এবং সিদ্ধান্ত নিতে পারে।

ব্যাখ্যা-৪
যখন মানুষ তাদের ভালোবাসার মানুষের ছবি দেখে, তখন তাদের সব রাগ এবং ক্ষোভ দূর হয়ে যায়। বিজ্ঞানীরা বলেন, ভালোবাসলে মানুষের মস্তিষ্কের নেতিবাচক কিছু কোষ তাদের কার্যক্রম বন্ধ করে দেয়। যার কারণেই এমনটি ঘটে।

ব্যাখ্যা-৫
ভালোবাসলে প্রিয়জনের কোন খারাপ কিংবা নেতিবাচক দিক আপনার চোখে পড়ে না। সবসময় আপনি তার ভালো দিকটাই খুঁজে ফেরেন। ফলে আপনার মেজাজও সবসময় ভালো থাকে। তাই বিজ্ঞানীরা বলেন, মেজাজ ভালো রাখতেও ভূমিকা রাখে ভালোবাসা।

ব্যাখ্যা-৬
যখন আপনি কারও সঙ্গে গভীর প্রেমে জড়িয়ে পড়েন, তখন আপনি অনেক বেশি সাহসী হয়ে উঠেন। ভালোবাসাকে পূর্ণতা দিতে তখন যুদ্ধে নামতেও আপনি দ্বিধা করেন না। বিজ্ঞানের ভাষায়, ভালোবাসা তখন হয়ে উঠে অনেক বেশি নাটকীয়।

ব্যাখ্যা-৭
বিজ্ঞানীরা বলেছেন, কোকেইন এবং অন্যান্য মাদকগুলো মস্তিষ্কে প্রভাব ফেলে। মস্তিষ্কে ভালোবাসার প্রভাবটাও ঠিক তেমনই। অর্থাৎ বিজ্ঞানের ভাষায়, ভালোবাসাও এক ধরনের মাদক।

ব্যাখ্যা-৮
যখন আপনি কাউকে ভালোবাসেন তখন আপনার মনের মধ্যে সবসময় ভালো অনুভূতিগুলো উপস্থিত থাকে। ফলে আপনি অনেক ভালো বোধ করেন। দুনিয়টাকে তখন আপনার কাছে স্বর্গ মনে হয়। তাই বিজ্ঞানীরা বলেন, ভালোবাসা স্বর্গও বটে। তথ্যসূত্র: বোল্ডস্কাই ডট কম।


ঢাকা, বৃহস্পতিবার, জুলাই ২৮, ২০১৬ (বিডিলাইভ২৪) // টি এ এই লেখাটি ৩৪৪৯ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন