সর্বশেষ
শুক্রবার ৩০শে অগ্রহায়ণ ১৪২৫ | ১৪ ডিসেম্বর ২০১৮

নৌকায় জন্ম, নৌকায় মরণ

রবিবার, নভেম্বর ৮, ২০১৫

2092935925_1446970196.jpg
লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি :
আধুনিক যুগে মানুষ স্বপ্ন দেখে চাঁদে কিংবা বহুতল ভবনে বসবাস করার। ঠিক এ সময় নৌকায় বাসবাস করছে একশ্রেণির মানুষ। লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার মজু চৌধুরীর হাট ঘাট এলাকায় মেঘনা নদীর তীরে এভাবেই ভাসমান অবস্থান প্রায় শতাধিক ভাসমান জেলে পরিবার। নৌকায় যাদের বসবাস। নৌকাতেই জম্ম আর নৌকাতেই তাদের মৃত্যু। খাওয়া-দাওয়া, বিয়ে-বাজনা সব কিছুই চলে নৌকাতে।

সার্বভৌম একটি স্বাধীন দেশে বসবাস করে নাগরিক হিসেবে সব রাষ্ট্রীয় অধিকার ভোগ করার কথা থাকলেও এ অধিকার থেকে তারা বঞ্চিত। এসব জেলেদের বেশির ভাগেরই নাম নেই ভোটার তালিকায় কিংবা জন্ম নিবন্ধন রেজিস্টারে।

সরকারের একটু সহযোগিতা পেলে বদলে যেতো তাদের জীবন চিত্র। প্রকৃতি অনুকূলে থাকলেই তারা সপরিবারে ছুটে যায় মেঘনা নদীতে। মাছ শিকারের পর আবার তারা নদীর কিনারাই ফিরে আসে।

সরেজমিনে দেখা গেছে, নৌকায় বসবাস হলেও বিনোদনে তাদের ঘাটতি নেই। প্রায় নৌকায় রয়েছে ব্যাটারি চালিত টেপ রেকর্ডার। আবার বহরের কয়েকটি নোকায় সৌরবিদ্যুৎ। যার মাধ্যমে ২-৩টি লাইট জ্বলে।

এখানকার প্রায় সব জেলে পরিবারই জিম্মি মহাজনের কাছে। নদী থেকে ফিরে ঝুড়িভর্তি মাছ তুলে দেওয়া হয় কিনারায় অপেক্ষায় থাকা মহাজনের হাতে। মহাজন বাজারে মাছ বিক্রি করেন। মাছ বিক্রির টাকা কখনো গুণে দেখেনি জেলেরা।

নাম প্রকাশ না করার শর্তে কয়েকজন জেলে বলেন, সারাবছর মহাজন পুলিশের হাত থেকে আমাদের রক্ষা করেন, যখন নদীতে মাছ থাকে না তখন মহাজন আমাদের সওদা চাল, ডাল, লবণ কিনে দেন। তাই মহাজনই আমাদের সব। বিপদের সময় বন্ধু সেজে মহাজন সওদার নামে ওই জেলেদের দাদন দিয়ে থাকেন। আর ওই দাদনের বিনিময়ে নিজেকে জিম্মি করেন জেলেরা। জেলে পুনর্বাসন কর্মসূচির তালিকায়ও নাম নেই ভাসমান জেলেদের।

মহাজনের নির্দেশে বাধ্য হয়ে নদীতে মাছ শিকার করতে যাওয়া ভাসমান জেলে পরিবারের শিশুরা স্কুলে যাওয়ার সুযোগ পায় না। নিয়মিত বাবা-মায়ের সঙ্গে জাল টানতে সহায়তা করছে শিশুরা। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে নদীতে মাছ শিকার করতে গিয়ে সম্প্রতি জলদস্যু প্রহারে শিকার হতে হয় এসব জেলেদের।

জেলেরা আরো বলেন, মাথা গোঁজবার স্থান নেই তাদের। তাই তারা ঝুঁকি নিয়ে জীবন যুদ্ধে লড়ছেন প্রতিকুল আবহাওয়ায়। নৌকায় তাদের জীবন নৌকায় তাদের মরণ। হাসি কান্না আর আনন্দ বেদনা সব কিছুই ঘটে এ নৌকায়। 

ঢাকা, রবিবার, নভেম্বর ৮, ২০১৫ (বিডিলাইভ২৪) // আর এস এই লেখাটি ১৪৬০ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন