সর্বশেষ
রবিবার ১৫ই চৈত্র ১৪২৬ | ২৯ মার্চ ২০২০

মনোনয়ন নিয়ে নয়, অন্য কারণে নাছিরের আক্ষেপ

মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী ১৮, ২০২০

3_0.jpg
বিডিলাইভ রিপোর্ট :

চট্টগ্রাম সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে দলীয় মনোনয়ন না পাওয়ায় কোন কষ্ট নেই। তবে বঙ্গবন্ধুর খুনির পরিবারের সাথে ব্যবসায়িক সম্পর্ক রয়েছে বলে যে ধরনের অপপ্রচার চালানো হয়েছে তাতে খুব কষ্ট পেয়েছেন বলে জানান বর্তমান সিটি মেয়র আ জ ম নাছির উদ্দীন।

এই সময় তিনি বলেন, আমি অপরাজনীতির শিকার। অপরাজনীতির শিকার হওয়ায় আমি কিছুটা কষ্ট পেয়েছি। আওয়ামী লীগ রাজনীতিকে এবাদত হিসেবে নিয়েছি। ছোট একটা পদ মেয়র। কেউ যদি বলত মেয়র পদ আমি এমনিতে ছেড়ে দিতাম। গতবারও তো আমি মনোনয়ন চাইনি। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী দিয়েছেন। কারো যদি মেয়র পদ দরকার হয় বললেই হত, আমি মেয়র পদ ছেড়ে দিতাম। একশ ভাগ একটি মিথ্যাকে প্রতিষ্ঠিত করার জন্য এ ধরনের একটি অপপ্রচার চালানো হয়েছে বলে জানান সিটি মেয়র।

মঙ্গলবার চট্টগ্রামের প্রেসক্লাবে বর্তমান মেয়রের সাথে সাংবাদিকদের মত বিনিময় সভায় এসব কথা বলেন তিনি। নাছির বলেন, ‘তিন দিন আগে আমাকে এক জায়গা থেকে গোল চিহ্নিত একটি ছবি দেখানো হয়েছে। সে হচ্ছে একরাম খান। ১৯৯৪ সালে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সহ সভাপতি ছিল। সে তার গ্রামের বাড়ির একটি কলেজের প্রিন্সিপাল। থানা আওয়ামী লীগের মেম্বার ছিল। বঙ্গবন্ধু পরিষদের সভাপতি ছিল। আমার চরম দুঃসময়ে দেড় থেকে দুমাস ধরে একটি কক্ষে আবদ্ধ ছিলাম। সূর্যের আলোও দেখি নাই। দরজা তালা মারা থাকত। শুধুমাত্র নাস্তা খাওয়ার সময় দরজা খোলা হত। একরামের সাথে সেসময় পরিচয়। এই সব কারণে তার প্রতি আমি কৃতজ্ঞ।

নাছির জানান, নগরীর অক্সিজেন এলাকায় একটি ব্যবসা প্রতিষ্ঠান উদ্বোধন করার অনুরোধ করেন একরাম। সেটি উদ্বোধন করতে যাই। এসময় তার পাশে কে দাঁড়িয়েছে, কে ছবি তুলেছে সেই বিষয় সম্পর্কে আমি কিছুই জানতাম না। অন্য আর একটি ছবিতে শাহরিয়ার রশিদ খানের ভাই বলে যাকে বলা হয়েছে, তাকে আমি চিনি না। জীবনে দেখিও নাই। জানিও না। কোন সম্পর্ক, যোগাযোগ কিছু নেই। আমি অপরাজনীতির শিকার।

বর্তমান মেয়র সাংবাদিকদের উদ্দেশ্যে বলেন, বঙ্গবন্ধু খুনিদের বিরুদ্ধে জীবন বাজি রেখে কাজ কাজ করেছি। আত্তয়ামী লীগ রাজনীতিকে এবাদত হিসেবে নিয়েছি। জীবনের ঝুঁকি নিয়ে সব সময় রাজনীতি করেছি। কারো যদি পদের দরকার হয়, বললেই হত, মিথ্যাচারের কোন দরকার ছিল না।

তিনি বলেন, একজন আ জ ম নাছির তৈরি করা তো অনেক সাধনার ব্যাপার। আমরা দুঃসময়ের পরীক্ষিত কর্মী। আমাদের নতুনভাবে পরীক্ষা দেয়ার কিছু নাই। কষ্ট হওয়ার থাকলে এই জায়গায় কষ্ট পেয়েছি।

তিনি বলেন, ‘বায়তুল মোকাররম মসজিদে জামায়াত ইসলাম আমার বিরুদ্ধে সভা করে ফাঁসির দাবি জানিয়েছিল। অপারেশন ক্লিন হার্টের সময় হত্যার চেষ্টা করা হয়েছিল। বিএনপি সরকারের আমলে ম্যাডাম খালেদা জিয়া আ জ ম নাছিরের নাম উল্লেখ করে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে গ্রেপ্তারের দাবি জানিয়েছিলেন।


ঢাকা, মঙ্গলবার, ফেব্রুয়ারী ১৮, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // কে এইচ এই লেখাটি ৬৭২ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন