সর্বশেষ
মঙ্গলবার ১৯শে জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ | ০২ জুন ২০২০

ছোট পর্দায় প্রতিদিন ক্ষতি ৭০ লাখ

শুক্রবার, মার্চ ২৭, ২০২০

apurba-bg20200209205620.jpg
বিডিলাইভ রিপোর্ট :

সামনে ঈদের মৌসুম। আছে পয়লা বৈশাখের কাজ। এ দুই বিষয় উল্লেখ করে ডিরেক্টরস গিল্ডের সভাপতি সালাউদ্দিন লাভলু জানান, এ সময় বছরের সবচেয়ে বেশি কাজ হয়। অনেক নির্মাতা সারা বছর কাজ না করলেও ঈদে নাটক নির্মাণ করেন। সচরাচর এই সময় থেকে ঈদের আগের দিন পর্যন্ত টানা কাজ চলে।

নির্মাতা, শিল্পী, প্রযোজকসহ কলাকুশলীদের এই সময়ে কাজের ব্যস্ততায় দম ফেলার সময় থাকে না। প্রতি মাসে ছোট পর্দায় ৪০ থেকে ৫০ কোটি টাকা বিনিয়োগ হলে এই সময়ে বিনিয়োগের পরিমাণ আরও অনেক বেড়ে যায়। শুটিং বন্ধ ঘোষণার পরদিন কত টাকার ক্ষতি হচ্ছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, ‘এই মুহূর্তে প্রতিদিন আমাদের ৪০ থেকে ৫০টির বেশি একক, ধারাবাহিক নাটকের শুটিং হওয়ার কথা।

কিন্তু সেগুলো করোনা–পরিস্থিতির কারণে বন্ধ আছে। আমাদের সবার নির্মাতা, আর্টিস্ট, প্রযোজক, ক্যামেরাম্যানসহ অন্য সবার ব্যয় এর মধ্যে প্রতিদিন দিন ছোট পর্দার প্রযোজকদের সংগঠন বাংলাদেশ প্রডিউসারস অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি ইরেশ যাকেরও একই মত দিলেন।

তিনি বলেন, ‘এক মাস শুটিং হলে সব মিলে নাটকের বাজেট থাকে, সেটা সর্বনিম্ন ৫০ কোটি টাকা। এই মুহূর্তে আমাদের নাটকের ব্যস্ততা বেশি। সে হিসাবে এখন আমাদের প্রতিদিন ৭০ লাখ টাকার বেশি ক্ষতি হচ্ছে। এখন আমরা যারা চলতে পারছি, তারা এই ইন্ডাস্ট্রির অসচ্ছলদের কথা ভাবছি। কারণ, দীর্ঘদিন শুটিং বন্ধ থাকলে ছোট পর্দার সঙ্গে জড়িত নিম্ন এবং নিম্ন–মধ্যম আয়ের এসব মানুষেরা অনেকেই আর্থিকভাবে চরম ক্ষতির সম্মুখীন হবেন।’


ঢাকা, শুক্রবার, মার্চ ২৭, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // এ এম এই লেখাটি ৩৩১ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন