সর্বশেষ
বুধবার ১৩ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ | ২৭ মে ২০২০

'ভিন্ন করোনায়' বিপাকে ভারত-অস্ট্রিয়ার এই বাসিন্দারা

সোমবার, মার্চ ৩০, ২০২০

3.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

যে করোনা বিশ্বকে কাঁপিয়ে দিচ্ছে, সেটা একটা ভাইরাস। আর এই ভাইরাসের ত্রাসে কাঁপছে আবার অন্য এক করোনা! এই দুই করোনার নামই বিশ্বের সঙ্গে দু’রকম ভাবে জড়িয়ে রয়েছে। এক করোনা বিশ্বের কাছে এখন ত্রাস। আর দ্বিতীয় করোনা দুটি ছোট্ট গ্রাম। যার একটি অবস্থান ভারতে, অন্যটির অবস্থান অস্ট্রিয়ায়।অস্ট্রিয়ার আল্পস পর্বতের পাদদেশে অবস্থিত ছোট্ট গ্রামটির নামও করোনা। সেন্ট করোনা। আর এই নাম নিয়েই বেজায় সমস্যায় পড়েছেন গ্রামবাসীরা। গ্রামের নাম পরিবর্তনের কথাও ভাবছেন মেয়র মাইকেল গ্রুবের।ভিয়েনা থেকে ১০০ কিলোমিটার দক্ষিণে অবস্থিত অস্ট্রিয়ার এই গ্রামের উপার্জনের মূল পথই হল পর্যটন। দেশ-বিদেশ থেকে সারা বছরই পর্যটকেরা এই গ্রামে এসে হাজির হন। গ্রামে মাত্র ৪০০ পরিবারের বাস।গ্রামের পর্যটন শিল্পের ম্যাসকট একটি পিঁপড়ে। তার নামও করোনা। ম্যাসকটের ছবি ঐতিহ্যবাহী পোশাক এবং বিভিন্ন তথ্যে প্রদর্শিত হয়। প্রথম প্রথম যখন করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব শুরু হয়েছিল, সে সময় নামের সাদৃশ্য নিয়ে হাসাহাসিই করতেন গ্রামবাসীরা। কিন্তু পরে এর ভয়াবহতা তাঁরা বুঝতে পারেন। আর এখন বিশ্বব্যাপী যে ভাবে তাণ্ডব চালাতে শুরু করেছে করোনাভাইরাস, তাতে পর্যটন শিল্প নিয়েও উদ্বিগ্ন মেয়র মাইকেল গ্রুবের।

এএফপি-কে দেওয়া এক সাক্ষাত্কারে তিনি বলেছেন, “পর্যটকদের স্বাগত জানানোর জন্য আমাদের এ বার হয়তো ম্যাসকটের নাম বদলে ফেলতে হবে।” কেন? করোনাভাইরাসের অভিশাপের কথা মাথায় রেখেই এমন সিদ্ধান্ত তার।
অপরদিকে একই সমস্যার মুখোমুখি উত্তরপ্রদেশের একটি গ্রামের বাসিন্দারা। তাঁদের গ্রামের কাছে পিঠে ঘেঁষছেন না কেউ। কিন্তু কেন? আসলে উত্তরপ্রদেশের সীতাপুরের কাছে গ্রামটির নামই করোনা। নাম শুনেই উলটো দিকে হাঁটছেন সকলে।
গ্রামের এক বাসিন্দা রাজন জানান, আমাদের কেউ কোনও কাজে নিচ্ছেন না। সরকারি অনুদান নিতে গেলে, এড়িয়ে যাচ্ছে। আমরা করোনা থেকে আসছি বললেই সবাই পালিয়ে যাচ্ছেন। ভাবছেন, আমরা মহামারি ছড়াচ্ছি। কিছুতেই বুঝতে চাইছে না, আমরা জীবাণু নই, আমাদের গ্রামের নাম করোনা।

আরেক বাসিন্দা সুনীল বলেন, কোনো কারণে যদি গ্রামের বাইরে যাই আর পুলিশ আমাদের জিজ্ঞাসাবাদ করে, তখন যেই বলি আমরা করোনা গ্রামের বাসিন্দা, পুলিশও যেন কেমন অদ্ভূত আচরণ করেন। গ্রামের নাম যদি করোনা হয় তাতে আমরা কী দোষ করলাম। ফোনে কাউকে যদি বলি আমি করোনা গ্রাম থেকে বলছি, তাহলে হয় তিনি ফোন কেটে দেন না হলে ভাবেন মজা করছি।
বিশ্বে মহামারি রূপ নেয়া করোনা যেন এক করেছে ভিন্ন দুটি দেশের ভিন্ন দুটি গ্রামকে।

 


ঢাকা, সোমবার, মার্চ ৩০, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // কে এইচ এই লেখাটি ৫৮৯ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন