সর্বশেষ
বুধবার ১৩ই জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭ | ২৭ মে ২০২০

তাঁবুতে যেভাবে আইসোলেশন সেন্টার বানাচ্ছে যুক্তরাষ্ট্র

মঙ্গলবার, এপ্রিল ৭, ২০২০

7.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

চীন, ইতালি, স্পেনকে ছাড়িয়ে করোনাভাইরাসের নতুন কেন্দ্র হয়ে উঠেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। ওয়ার্ল্ডোমিটারের তথ্য অনুযায়ী মঙ্গলবার মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে করোনাভাইরাসে মৃত্যুর সংখ্যা ১০,৯৪৩। আক্রান্তের সংখ্যা প্রায় ৩ লক্ষ ৬৭ হাজার। এর মধ্যে নিউইয়র্কেই আক্রান্তের সংখ্যা ১ লক্ষ ৩১ হাজারেরও বেশি।

নিউইয়র্কের রাস্তা জুড়ে এখন শুধুই অ্যাম্বুলেন্স, দমকল বাহিনী ও পুলিশ-প্রশাসনের গাড়ির সাইরেনের শব্দ। স্বাস্থ্যকর্মীদের মতে, এখনও অভাব রয়েছে প্রয়োজনীয় টেস্ট কিটের। সংক্রমণ ছড়ানো রোধ করতে প্রয়োজনীয় পদক্ষেপের অভাবের অভিযোগও করছেন স্বাস্থ্যকর্মীরা।

হাসপাতালগুলির আইসোলেশন ওয়ার্ডে স্থান সংকুলানের অভাবে কোনো কোনো ক্ষেত্রে হাসপাতাল চত্বরের বাইরেই তাবু করে আইসোলেশনের ব্যবস্থা করা হচ্ছে। এমনকি সেন্ট্রাল পার্কেও তাবু করে অস্থায়ী আইসোলেশন সেন্টারের ব্যবস্থা করছে মার্কিন স্বাস্থ্য দফতর।

এনবিসি নিউজের প্রতিবেদনে জানানো হয়েছে, নিউইয়র্কের অপেক্ষাকৃত কম বিত্তশালীদের স্থানেই করোনাভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বেশি। কম স্থানে ঘিঞ্জিভাবে প্রচুর মানুষের বসবাস, সচেতনতার অভাবে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বহুগুণ বৃদ্ধি পেয়েছে। নিউইয়র্কে সাবওয়ে বা পাতাল রেলের মাধ্যমেও সংক্রমণ ছড়িয়ে থাকতে পারে বলে মনে করা হচ্ছে। নিউইয়র্কে করোনাভাইরাসে প্রাণ হারিয়েছেন প্রায় ৪,৭৫৮ জন।

মার্কিন সেনার সাবেক ক্যাপ্টেন ডারিন পোর্চার জানান, টেস্ট কিটের অভাব ও সংক্রমণ রোধের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেই সরকারি আইসোলেশন কেন্দ্রগুলি। তিনি বলেন, 'এই হাসপাতালগুলি সাধারণত ছোটখাটো সার্জারি বা অ্যাক্সিডেন্ট এমার্জেন্সি মোকাবেলার কাজ করে। এই ধরনের নতুন একটা ভাইরাস মোকাবেলার জন্য সরকারি হাসপাতালগুলি স্বাভাবিকভাবেই প্রস্তুত নয়।'


ঢাকা, মঙ্গলবার, এপ্রিল ৭, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // কে এইচ এই লেখাটি ২২৫ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন