সর্বশেষ
মঙ্গলবার ৩০শে চৈত্র ১৪২৭ | ১৩ এপ্রিল ২০২১

এক লাখ টাকার ঋণের দুই মাসের সুদ মওকুফ

বুধবার, জুন ১০, ২০২০

eee_0.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

করোনা ভাইরাস সঙ্কটের মধ্যে এক লাখ টাকা ঋণের সুদ মওকুফ করা হয়েছে। এর আগে এ সুদ দুই মাস স্থগিত ছিল। তবে এখন শুধু মাত্র ক্রেডিট কার্ড ছাড়া সব ধরনের ঋণ (১ লাখ টাকা) আদায়ের সময় বিভিন্ন মাত্রায় মওকুফ করার নির্দেশ দিয়েছে সরকার। তবে ঋণ খেলাপীর ক্ষেত্রে এসব সুবিধা প্রযোজ্য হবে না বলে গত রোববার সব ব্যাংকের প্রধান নির্বাহীদের এই নির্দেশনা পাঠিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

এর আগে বলা হয়েছিল ৩১ মার্চ পর্যন্ত কারও ঋণের স্থিতি এক লাখ টাকা পর্যন্ত হয়ে থাকলে তাকে এপ্রিল ও মে মাসের জন্য কোনো সুদ দিতে হবে না। ঋণের স্থিতি এক থেকে ১০ লাখ টাকা পর্যন্ত হলে বার্ষিক ২ শতাংশ হারে এবং ১০ লাখ টাকার বেশি ঋণের ক্ষেত্রে ১ শতাংশ হারে সুদ মওকুফ হবে। তবে একজন গ্রাহকের মওকুফ করা সুদের পরিমাণ ১২ লাখ টাকার বেশি হতে পারবে না।

মওকুফ করা সুদের টাকা সরকার ভর্তুকি হিসেবে ব্যাংকগুলোকে দেবে। ঋণের সর্বোচ্চ সুদ হার ৯ শতাংশ ধরে এ হিসাব করতে হবে। বাকি সুদ চলতি বছরের জুলাই থেকে আগামী বছরের জুনের মধ্যে কিস্তিতে গ্রাহকের কাছ থেকে আদায় করতে পারবে ব্যাংক। এক লাখ থেকে ১০ লাখ টাকা ঋণের ক্ষেত্রে সুদের ২ শতাংশ মওকুফ হওয়ায় বাকি ৭ শতাংশ গ্রাহককে পরিশোধ করতে হবে। আর ১০ লাখ টাকার বেশি ঋণের ক্ষেত্রে সুদের ৮ শতাংশ পরিশোধ করতে হবে।


ঢাকা, বুধবার, জুন ১০, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ১৪১২ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন