সর্বশেষ
বৃহঃস্পতিবার ২৯শে শ্রাবণ ১৪২৭ | ১৩ আগস্ট ২০২০

বাগদান হলেও যে কারণে বিয়ে হয়নি অক্ষয়-রাভিনার

সোমবার, জুলাই ১৩, ২০২০

ttt.jpg
বিডিলাইভ ডেস্ক :

দীর্ঘ অভিনয়-জীবনে অসংখ্য দর্শকপ্রিয় সিনেমা উপহার দিয়েছেন বলিউডের অভিনেতা অক্ষয় কুমার। কোটি কোটি ভক্তের মনে জায়গা করে নিয়েছেন এই অভিনেতা। সিনেমার পাশাপাশি ব্যক্তিগত প্রেম নিয়ে প্রায়ই আলোচনায় এসেছেন অক্ষয়।

পূজা বাত্রা, আয়েশা জুলেখা, রাভিনা ট্যান্ডন, রেখা, সুস্মিতা সেন, শিল্পা শেঠি ও প্রিয়াঙ্কা চোপড়ার সঙ্গে অক্ষয় এর প্রেমের গুঞ্জন শোনা গেছে। এর মধ্যে অভিনেত্রী রাভিনা ট্যান্ডনের সঙ্গে অক্ষয়ের বাগদানও হয়েছিল। কথা ছিল, ‘খিলাড়িও কা খিলাড়ি’ সিনেমার শুটিং শেষ হলে বিয়ে করবেন। কিন্তু শেষ পর্যন্ত তাদের সম্পর্ক টেকেনি।

অক্ষয়-রাভিনার ঘনিষ্ঠতা শুরু হয় ‘মোহরা’ সিনেমার শুটিং সেটে। এই সিনেমার ‘টিপ টিপ বরসা পানি’ গানে রাভিনার আবেদন কোটি পুরুষের মনে শিহরণ জাগিয়েছিল। কিন্তু সে সময় এই অভিনেত্রী অক্ষয়কেই বেছে নিয়েছিলেন। ১৯৯৫ সালের শুরুর দিকে তাদের প্রেম শুরু হয়। মিডিয়ায় তাদের নিয়ে নিয়মিত চর্চা হতে থাকে।

১৯৯৬ সালে ‘খিলাড়িও কা খিলাড়ি’ মুক্তি পায়। সিনেমায় অক্ষয়, রাভিনা জুটির সঙ্গে রেখা ছিলেন নেগেটিভ চরিত্রে। সিনেমাটি বক্স অফিসে সাড়া ফেলে। কিন্তু এর চেয়েও বেশি আলোচিত হতে থাকে রাভিনা-অক্ষয়-রেখার ত্রিভুজ প্রেম। অক্ষয়ের সঙ্গে রেখার ঘনিষ্ঠতার বিষয়টি বলিপাড়ায় ছড়িয়ে পড়ে। তবে এ বিষয়ে অক্ষয়কে নয় বরং রেখাকেই দোষারোপ করেছিলেন রাভিনা। এমনকি অক্ষয়ের জীবন থেকে সরে যাওয়ার হুমকিও দিয়েছিলেন।

এক সাক্ষাৎকারে রাভিনা বলেন, ‘আমার মনে হয় না অক্ষয়ের সঙ্গে রেখার কোনো সম্পর্ক ছিল। সত্যি বলতে, সে রেখার কাছ থেকে পালিয়ে বাঁচার চেষ্টা করেছে। শুধু সিনেমার জন্য রেখাকে তার সহ্য করতে হয়েছে। এক সময় রেখা অক্ষয়ের জন্য বাসা থেকে খাবার নিয়ে আসতে শুরু করে। সেই সময় আমি বিষয়টিতে হস্তক্ষেপ করি। আমার মনে হয়েছে, এটি বাড়াবাড়ি।’

অন্য এক সাক্ষাৎকারে এই অভিনেত্রী বলেন, ‘আমার সঙ্গে অক্ষয়ের সম্পর্ক রয়েছে জানার পরও যদি এই অভিনেত্রী (রেখা) বেশি ঘনিষ্ঠ হওয়ায় চেষ্টা করে, তাহলে আমি ছাড়ব না। তবে অক্ষয় জানে কীভাবে পরিস্থিতি সামলাতে হয়।’

এ প্রসঙ্গে সে সময় রেখার কোনো মন্তব্য পাওয়া যায়নি। অক্ষয়ও মুখে কুলুপ এঁটে ছিলেন। কিন্তু এর রেশ কাটতে না কাটতেই শিল্পা শেঠির সঙ্গে অক্ষয়ের প্রেমের গুঞ্জন ওঠে। এই ঘটনার পর হাল ছেড়ে দেন রাভিনা। তিনি বুঝতে পারেন, অক্ষয়ই তার সঙ্গে প্রতারণা করছে। ধীরে ধীরে তাদের দূরত্ব বাড়তে থাকে।

১৯৯৯ সালে স্টারডাস্টকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে রাভিনা জানান, তার কাছে বিশ্বাস অনেক গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। কিন্তু অক্ষয়ের মাঝে সেটি নেই। একটি মন্দিরে গিয়ে বাগদান সেরেছিলেন তারা। তবে দর্শকের কাছে ইমেজের কথা চিন্তা করে বিষয়টি গোপন রাখেন।

পরবর্তী সময়ে চিত্র পরিবেশক অনিল থাডানিকে বিয়ে করেন রাভিনা। অন্যদিকে জীবনসঙ্গী হিসেবে অভিনেত্রী টু্ইঙ্কেল খান্নাকে বেছে নেন অক্ষয়। তবে অক্ষয়-রাভিনার মধ্যে এখন কোনো তিক্ততা নেই। বরং, এক অনুষ্ঠানে রাভিনা প্রসঙ্গে অক্ষয় কুমার বলেন, ‘তার সঙ্গে কাজ করতে পারাটা গর্বের বিষয়। আমরা একসঙ্গে অনেক সিনেমায় অভিনয় করেছি।’


ঢাকা, সোমবার, জুলাই ১৩, ২০২০ (বিডিলাইভ২৪) // পি ডি এই লেখাটি ৩৮৬ বার পড়া হয়েছে


মোবাইল থেকে খবর পড়তে অ্যাপস ডাউনলোড করুন